করোনা আতঙ্কের মাঝেও চলছে রাজনৈতিক হানাহানি! মুর্শিদাবাদের কান্দিতে রাস্তায় দাঁড়িয়ে চকোলেট বিলি করতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন এক কংগ্রেস কর্মী। তৃণমূল কর্মীদের তাঁকে রীতিমতো গণধোলাই দেন বলে অভিযোগ। ঘটনায় নাম জড়িয়েছে  শাসকদলের স্থানীয় কাউন্সিলরেরও। \

আরও পড়ুন: উত্তরবঙ্গেও ছড়াচ্ছে করোনা, আরও চারজনের শরীরে মিলল সংক্রমণ

আক্রান্তের নাম প্রশান্ত ভকত। এলাকায় কংগ্রেসের সক্রিয় হিসেবে পরিচিত তিনি। বুধবার সকালে কান্দি শহরের রূপপুর এলাকায় রেশন দোকানের সামনে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন অনেকেই। দোকানে সামনে অধীর চৌধুরীর নাম করে চকোলেট বিলি করছিলেন প্রশান্ত। প্রথম সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। অভিযোগ, আচমকাই ওই রেশন দোকানের সামনে হাজির হন কয়েকজন তৃণমূল কর্মীরা। কংগ্রেস কর্মীকে রাস্তায় ফেলে শুরু হয় বেধড়ক মারধর। ঘটনার আকস্মিকতা হকচকিয়ে যান সকলেই। কোনওমতে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে বাঁচেন আক্রান্ত ব্যক্তি। 

আরও পড়ুন: করোনার বিরুদ্ধে লড়াই, বীরভূমে গান গেয়ে সচেতনতার পাঠ এসপিডিও-র

কিন্তু চকোলেট বিলি করতে গিয়ে খামোকা কেন মার খেতে হল কংগ্রেস কর্মীকে? ঘটনার নেপথ্যে রাজনৈতিক প্রতিহিংসাকে দায়ি করছেন অনেকেই। তাঁদের মতে, যেহেতু কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী নামে চকোলেট বিলি করছিলেন, তাই তৃণমুল কর্মীদের রোষের মুখে পড়েছেন আক্রান্ত ব্যক্তি। যদিও লকডাউনের মাঝে গণপিটুনির অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসকদলের স্থানীয় নেতৃত্ব।