বীরভূমে এখনও পর্যন্ত কেউ করোনায় আক্রান্ত হননি। কিন্তু সংক্রমণ ছড়াতে কতক্ষণ! মানুষকে সচেতন করতে পথে নামলেন খোদ রামপুরহাটের এসডিপিও সৌম্যজিত সরকার। রেশন দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে গান গেয়ে সতর্ক করলেন সাধারণ মানুষকে। 

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কে গৃহবন্দি, মানসিক অবসাদে আত্মহত্যা করলেন বৃদ্ধ

এ রাজ্যেও এবার লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বুধবারও করোনা সংক্রমণে কলকাতায় মারা গিয়েছেন একজন। স্রেফ সচেতনতা অভাবে বিপদ আরও বাড়বে না তো? বাড়ছে আশঙ্কা। কারণ, লকডাউনে অগ্রাহ্য করে এখনও রাস্তায় বেরোচ্ছেন অনেকে। সকাল-সন্ধে আড্ডা চলছে পাড়ার মোড়ে, চায়ের দোকানে। রেশন থেকে জিনিস নিতে গিয়েও  সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি মাথায় রাখছেন না অনেকেই। এই যখন পরিস্থিতি, তখন অভিনব কায়দায় সচেতনতার বার্তা ছড়িয়ে দিলেন বীরভূমের রামপুরহাটের এসডিপিও সৌম্যজিত সরকার।

আরও পড়ুন: এবার মৃত্য়ু নয়াবাদের প্রৌঢ়ের, করোনা যুদ্ধে জিতলেন তিন সংক্রমিত

আরও পড়ুন:আক্রান্তের পরিবারের আরও দু'জন সংক্রমিত, করোনা আতঙ্ক বাড়ছে শেওড়াফুলিতে

রাজ্যে জুড়ে লকডাউন চলছে।  বুধবার সকালে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনার জন্য তারাপীঠ ও মল্লারপুরে রেশন দোকানের সামনে লাইন পড়ে গিয়েছিল। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ক্রেতারা দাঁড়িয়ে ছিলেন নির্দিষ্ট বৃত্তে।  ‘আজ এই দিনটাকে মনের খাতায় লিখে রাখো, করোনা থাকবে মনে, যতোদিন তুমি বেঁচে থাকো', রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করিয়ে মাইক হাতে গান ধরলেন এসপিডিও সৌম্যজিৎ সরকার। তিনি জানিয়েছেন, 'বীরভূমে গানের মাধ্যমেই মানুষকে সচেতন করার উদ্যোগ নিয়েছে জেলা পুলিশ। জনপ্রিয় বাংলার গানের কথা বর্তমান পরিস্থিতির উপযোগী করে লেখা হয়েছে।  মানুষ যদি সতর্ক হন, তাহলে উদ্যোগ সার্থক হবে।'