২০ মে, ২০২০ সাল, ভয়ানক স্মৃতি আমফানের। গোটা রাজ্যের যে চেহারা ধরা পড়েছিল ফ্রেমে তা এক কথায় বলতে গেলে ভয়ানক। সেই ছবি আবারও ফিরতে চলেছে বাংলায়। ধেয়ে আসছে যশ। আবহাওয়া দফতরের কথায় শুক্রবার বিকেলের দিকে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে পশ্চিমবঙ্গের একাধিক জেলায়। সঙ্গে হতে পারে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতও। গাঙ্গেয় পশ্চিমের জেলাগুলিতে বিকেলের দিকে হতে পারে ঝড়-বৃষ্টি।

আরও পড়ুন- আজ বজ্রবিদ্যুৎ সহ প্রবল বর্ষণ কলকাতায়, নিম্নচাপের পূর্বাভাস, আসছে ঘূর্ণীঝড় 'যশ' 

শনিবার রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টি শুরু হবে। তেমনই পূর্বাভাস মিলল এবার কলকাতা আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে। পাশাপাশি আগামী ২৬ মে সকালে ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে পৌঁছতে পারে যশ। এদিনই স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা। তাই আগে থেকেই চলছে মাইকিং। মাছ ধরতে গিয়ে যেন ঝড়ের কবলে না পড়তে হয় মাঝিদের ও মৎস্যজীবিদের তাই আগে থেকেই সমুদ্রে যেতে মানা করা হচ্ছে। 

যাঁরা ইতিমধ্যেই বেরিয়ে পড়েছেন, তাঁদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শুক্রবার হলদিয়া উপকূল রক্ষী বাহিনীর পক্ষ থেকে গভীর সমুদ্রে যেসব মৎস্যজীবী গেছে তাদের মাঝ সমুদ্র থেকে  পাড়ে ফেরার জন্য মাইকিং করে জানানো হচ্ছে, সেই ছবিও ফ্রেমে ধরা পড়ে। পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় যশ সম্পর্কে সচেতন করতে দিঘা থানার পক্ষ থেকে দীঘা উপকূলীয় এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে। সমুদ্র এলাকা থেকে নিরাপদ দূরে সরে যাওয়ার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় জিনিষপত্র সঙ্গে রাখারও বার্তা দেওয়া হচ্ছে।