ইতিমধ্যেই মা দুর্গার আগমন বার্তায় সেজে উঠেছে চারিদিক। শরৎ-এর মেঘ আর কাশফুল, শিউলি ফুলই জানান দিচ্ছে মায়ের আগমনের। আর এরই মধ্যে নিজেদের নতুন নতুন চিন্তাভাবনা নিয়ে প্যান্ডেলের কাজ শুরু করেছে দুর্গা পুজো কমিটি এবং ক্লাবগুলি। কলকাতার পাশাপাশি জেলাগুলিতেও শুরু হয়ে গিয়েছে পুজোর তোড়জোড়। তাদের মধ্যেই আবারও একটি নতুন ও অভিনব ভাবনা দিয়ে নিজেদের পুজো প্যান্ডেল সাজাতে চলেছে পূর্ব বর্ধমানের ইছলাবাদ কিরন সংঘ দুর্গোৎসব কমিটি। 

এই বছর তাদের পুজো ৬২-তম বর্ষে পা দিল। তাদের এই বছরের ভাবনা হল 'গণশা-র চোখে মা দূর্গা'। মূলত শিশুশ্রম ও শিশুশ্রমিকদের দুঃখ, কষ্ট, মানসিক মনোবেদনা নিয়ে হাজির হবে এই ক্লাব। ১৯৮৬ সালে চাইল্ড লেবার অ্যাক্ট চালু হলেও এদেশের শতকরা ৭০ ভাগ শিশুই শিশুশ্রমের অর্ন্তগত। পথে-ঘাটে, অনেক জায়গাতেই আমাদের চোখে পড়ে শিশু শ্রমিক। দুবেলা দুমুঠো খাবারের আশায় তারা বিভিন্ন পেশা বেছে নেয়। তাই ইছলাবাদ কিরন সংঘ দুর্গোৎসব কমিটি বেছে নিয়েছে এই থিমকে। তাদের আশা এই ছোট্ট প্রচেষ্টা দিয়ে তারা যদি একটুও সচেতনতা জাগিয়ে তুলতে পারেন জনসাধারণের মধ্যে। 

গত বছর তাদের ভাবনা ছিল বিশ্ব উষ্ণায়ন। তাই নানা রকমের বর্জ্য পর্দাথ দিয়ে সেজে উঠেছিল তাদের মন্ডপ। পুজোর পাশাপাশি বিভিন্ন রকমের সমাজেসবামূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকে তাদের ক্লাব। তাই জেলার পুজো পরিক্রমার তালিকাতে আপনি রাখতে পারেন ইছলাবাদ কিরন সংঘ দুর্গোৎসব-এর পুজো।