দলে নতুন বসেই নিশানা করেছিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কুরুচিকর মন্তব্য়ের অভিযোগে এবার বিজেপির জাতীয় সম্পাদক অনুপম হাজরার বিরুদ্ধে এফআইআর করল রাজ্যের তৃণমূল উদ্বাস্তু সেল। ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে খোদ মুখ্যমন্ত্রী বিরুদ্ধে পাল্টা আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদও।

আরও পড়ুন: কৃষি আইনের সমর্থনে সিঙ্গুরে বিজেপির পদযাত্রা, লকেটকে কালো পতাকা দেখালেন কৃষকরা

তৃণমূলের টিকিটেই প্রথম বোলপুর কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন তিনি। পরবর্তীকালে দলবদলে যোগ দেন বিজেপিতে। সম্প্রতি দলের জাতীয় সম্পাদকের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদও পেয়েছেন অনুপম হাজরা। আর তাতেই কি লাগামছাড়া মন্তব্য় করার প্রবণতা আরও বাড়ল? রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগণার বারুইপুরে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে যান অনুপম। কিন্তু তাঁর সভায় বহু মানুষের মুখেই মাস্ক ছিল না। এমনকী, প্রাক্তন সাংসদ অনুপম হাজরাও নিজেও মাস্ক পরেছিলেন না। কেন? তাঁর জবাব, 'আমার করোনা হলে ঠিক করে নিয়েছি প্রথমেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জড়িয়ে ধরব।' এই মন্তব্যকে ঘিরে বিতর্ক ঝড় ওঠেছে বিভিন্ন মহলে। অনুপমের বিরুদ্ধে এবার এফআইআর দায়ের করা হল শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটে।

আরও পড়ুন: 'প্রভাবশালী নেতাদের খুনের ছক', শান্তিনিকেতনে আগ্নেয়াস্ত্র-সহ গ্রেফতার চার বাংলাদেশি

সোমবার  মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা 'কুরুচিকর' মন্তব্যের প্রতিবাদে শিলিগুড়ি কমিশারেটের সামনে বিক্ষোভ দেখান পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল উদ্বাস্তু সেলের সদস্যরা। প্রেস বিবৃতিতে এফআইআর দায়ের করার কথা জানান সংগঠনের রাজ্য সভাপতি মুকুল বৈরাগ্য। মূলত উদ্বাস্তু সেলের মহিলা সদস্যদের তরফেই এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। এদিকে এই ঘটনার পর আবার ফেসবুকে পাল্টা পোস্ট দিয়েছেন অনুপম হাজরাও। হুঁশিয়ারি দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার।