Asianet News Bangla

উত্তরবঙ্গ ভেঙে পৃথক রাজ্যের দাবি, 'ষড়যন্ত্র'-র অভিযোগে BJP সাংসদের বিরুদ্ধে FIR

 

  •  উত্তরবঙ্গ ভেঙে পৃথক রাজ্যের দাবিতে সরব  জন বার্লা 
  • বিজেপি সাংসদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে 
  • বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে
  • 'প্রধানমন্ত্রী-রাষ্ট্রপতির কাছে যাব', জানিয়েছেন জন বার্লা 
     
FIR lodge against BJP MP Jhon Barla RTB
Author
Kolkata, First Published Jun 21, 2021, 9:29 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবিতে সরব বিজেপি সাংসদ জন বার্লা। বাংলা ভাগের ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে জন বার্লার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আলিপুর দুয়ারের বিজেপি সাংসদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হল দিনহাটা থানায়। 

'উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার দাবি থেকে সরছি না'- জন বার্লা

আরও পড়ুন, পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবিতে কি সিলমোহর BJP-র, মালব্য-র টুইট ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে 

 

 

সূত্রের খবর, জন বার্লার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন কোচবিহার জেলা যুব তৃণমূলের ভাইস-প্রেসিডেন্ট জাকারিয়া হোসেন। উত্তরবঙ্গকে ভেঙে আলাদা রাজ্যের দাবি জানানোর জন্য আলিপুর দুয়ারের বিজেপি সাংসদ জন বার্লার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ করেছেন তিনি। মূলত মোড় ঘোরে শনিবার। ওইদিন আলিপুরদুয়ারের একটি সাংবাদিক সম্মলনে গিয়ে বাংলা ভাগের পক্ষে সওয়াস করেন জন বার্লা। তিনি বলবেন, উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার দাবি থেকে সরছি না। এটা এখনকার মানুষের দাবি। এবিষয়ে আমি প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতির কাছে যাব। রাজ্যের দল নেতাদের এবিষয়ে বোঝাব।' এরপরেই গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে তোপ দাগে বিরোধীরা।

আরও পড়ুন, 'কোভিড পরিস্থিতিতে আশার আলো যোগচর্চা',আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে শুভেচ্ছা বার্তা মোদীর 

 


'এরা বিভেদের বিষ ছড়াতে এসেছে'-কুণাল ঘোষ

 উল্লেখ্যস রবিবার এহেন পরিস্থিতির মাঝেই তাৎপর্যপূর্ণ টুইট করেছেন বিজেপি নেতা অমিত মালব্য। তিনি বলেছেন,   'অমুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠতাই পশ্চিমবঙ্গ গঠনের প্রথম প্রয়োজনীয় শর্ত। তৃণমূল এই শর্ত ভাঙছে। যার দরুণ জনবিন্যাসে বদল আসছে। পশ্চিমবঙ্গ কেবল একটি জমির টুকরো নয়, এমন একটি ধারণা যেখানে মুক্ত চিন্তাধারী বাঙালি হিন্দু বাস করতে এবং উন্নতি করতে পারে। এই ধারণা তৃণমূল লঙ্ঘন করছে।' মালব্যর টুইটের পর আরও সরগরম রাজ্য-রাজনীতি। যদিও কুণাল ঘোষ ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেছেন, 'আমার খারাপ লাগে যে গো-হারার পরেও এদের কোনও শিক্ষা হল না। একটা লজ্জা থাকে তো যে মানুষ তাড়িয়ে দিল। এখানে এরা বিভেদের বিষ ছড়াতে এসেছে। এই ধরণের অপচেষ্টাকে বাংলার মানুষ প্রতিহত করবেন।

 


 
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios