বিদ্যাসাগর কলেজে তাণ্ডবের ঘটনায় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের নামে। এফআইআর দায়ের হল কলকাতার আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায়। কলেজের পড়ুয়ারাই বিজেপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ, অমিত শাহের নেতৃত্বেই মঙ্গলবার তাণ্ডব চাললানো হয় বিদ্যাসাগর কলেজে, ভাঙা হয় বিদ্যাসাগরের মূর্তি। বিজেপি সভাপতিকে মূল অভিযুক্ত হিসেবে চিহ্নিত করে তাঁর বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানি, সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুরের মতো জামিন অযোগ্য ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
 
মঙ্গলবার কলকাতায় বিজেপি সভাপতির রোড শোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ বাঁধে তৃণমূলল এবং বিজেপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে। বিধান সরণীর উপর দিয়ে বিজেপি-র মিছিল যাওয়ার সময়ে একদল যুবক বিদ্যাসাগর কলেজে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। ঘটনার পরেই কলেজে গিয়ে পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁরও অভিযোগ ছিল, অমিত শাহের নেতৃত্বেই ভাঙচুর চালানো হয়েছে কলেজে। তিনি অভিযোগ করেন, বহিরাগতদের নিয়ে এসে তাণ্ডব চালানো হয়েছে।

বিজেপি-র আবার পাল্টা অভিযোগ, মমতার উস্কানিতেই মিছিলে হামলা চালানো হয়েছে। মমতার প্রচার নিষিদ্ধ করার দাবিতে নির্বাচন কমিশনেও দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। তৃণমূল সমর্থকরাই বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা হয়েছে বলে অভিযোগ বিজেপি-র। আজ কলেজে ভাঙচুরের ঘটনায় বিদ্যাসাগর কলেজ কর্তৃপক্ষও পুলিশে অভিযোগ দায়ের করবে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পঞ্চাশ জনেরও বেশি অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।