বুদ্ধদেব পাত্র, পুরুলিয়া: খুন নাকি আত্মহত্যা? বিডিও অফিসে চত্বরে মিলল নৈশপ্রহরীর ঝুলন্ত দেহ। সঠিক তদন্ত ও চাকরির দাবিতে পুলিশের সামনে বিক্ষোভে ফেটে পড়লেন পরিবারের লোকেরা। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল পুরুলিয়া বাগমুন্ডিতে। 

আরও পড়ুন: মদের জন্য টাকা দেওয়া নিয়ে বচসা, ধারালো অস্ত্রের কোপে বাবাকে 'খুন' করল ছেলে

মৃতের নাম জগন্নাথ কুমার। বাড়ি, বাগমুন্ডি থানার ছাতাট্যাঁড় গ্রামে। সকালে ও রাতে ব্লক অফিস পাহারা দেওয়ার কাজ করতেন তিনি।  পরিবারের লোকেরা জানিয়েছে, রোজকার মতোই মঙ্গলবার রাতেও খাওয়া-দাওয়া সেরে বাড়ি থেকে কাজে যোগ দিতে গিয়েছিলেন জগন্নাথ। সকালে আর ফেরেননি, ব্লক অফিস চত্বরেই তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান আশেপাশের লোকজন। খবর দেওয়া হয় থানায়। কিন্তু পরিবারকে লোককে না জানিয়েই পুলিশ দেহটি হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। 

আরও পড়ুন: মনীশ শুক্ল খুনের ঘটনায় তদন্ত শুরু,সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ওষুধের দোকানে সিআইডি

এদিকে বেলা গড়াতে যখন ঘটনাটি কথা জানতে পারেন, তখন পুলিশের সামনে বিক্ষোভের ফেটে পড়েন মৃতের পরিবারের লোকেরা। এমনকী, তালা ঝুলিয়ে দেওয়া ব্লক অফিসেও। বাড়ির লোকের অভিযোগ, ব্লক অফিসে ডিউটি করার সময়ে জগন্নাথের উপর রীতিমতো অত্যাচার করা হত। তাঁকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। সঠিক তদন্ত তো বটেই, পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়ারও দাবি উঠেছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে বাগমুন্ডি থানার পুলিশ।