আকাশে মেঘ থাকবে। কিন্তু তা থেকে টানা বৃষ্টি হয়ে স্বস্তি মিলবে। খুব বড়জড় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়ে কিছুক্ষণের জন্য স্বস্তি পেতে পারেন দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। বরং প্রবল আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তির কাটার কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। 

আবহবিদদের পূর্বভাস অনুযায়ী, দক্ষিণবঙ্গের সর্বত্রই শনিবার আকাশ মেঘলা থাকায় তাপমাত্রা কিছুটা কম থাকবে। কিন্তু মেঘের কারণেই বজায় থাকবে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। বিক্ষিপ্তভাবে কোথাও কোথাও বৃষ্টি হলেও তা থেকে স্বস্তি পাওয়ার সম্ভাবনা কম। শুক্রবার রাতেও দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় সামান্য বৃষ্টি হওয়ায় তাপমাত্রা কিছুটা কমেছে। কিন্তু এখনই ভারী বৃষ্টি পাচ্ছে না দক্ষিণবঙ্গ। বরং কেরলে বর্ষা দেরিতে ঢোকার সম্ভাবনা প্রবল। সেই কারণে দক্ষিণবঙ্গেও বর্ষা নির্দিষ্ট সময়ের কয়েকদিন পরেই ঢুকবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। 

দক্ষিণবঙ্গের মানুষ বৃষ্টির অপেক্ষায় হাপিত্যেশ করে বসে থাকলেও উত্তরবঙ্গে কিন্তু ছবিটা সম্পূর্ণ উল্টো। বিহারের পূর্বভাবে এবং সিকিমের উপর দিয়ে থাকা একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখার কারণে সেখানে ভারী বৃষ্টি চলছে। আগামী কয়েকদিন দার্জিলিং, কালিম্পং-সহ উত্তরবঙ্গের পাঁচটি জেলায় টানা বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। ফলে বর্ষার ঢোকার আগেই টানা বৃষ্টিতে ভিজছে পাহাড়, আর দক্ষিণবঙ্গে বাড়ছে বৃষ্টির অপেক্ষা।