অল্পদিনের মধ্য়েই নদীয়া জেলার বড় দুর্গাপুজোগুলির মধ্যে স্থান করে নিয়েছে কেচুয়াডাঙার সাহাপাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসব। নবম বর্ষে তাঁদের পুজোর থিম বৌদ্ধ মন্দির। নির্দিষ্ট কোনও বৌদ্ধ মন্দির নয়, বৌদ্ধ সংস্কৃতির বিভিন্ন দিককে তুলে ধরে তাঁরা একটি কাল্পনিক বৌদ্ধ মন্দির তৈরি করছেন।

বিষয় ভাবনাটি এসেছে সুবিনয় স্বর্ণকারের মাথায়। আর তাকে রূপ দিচ্ছেন হরি গঙ্গোপাধ্যায়। প্রতীমা গড়ছেন উজ্জ্বল পাল। থার্মোকল দিয়ে বিভিন্ন বৌদ্ধ দেবদেবীর মূর্তি গড়া হচ্ছে মন্ডপ জুড়ে। বৌদ্ধ মঠগুলিতে যেইরকম ভিতরে আলো-আধারি থাকে সেই রকম একটা পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে প্যান্ডেলে। আর এখানকার পুজোর অন্যতম আকর্ষণ

গত বছর কেচুয়াডাঙা সাহাপাড়া সর্বজনীন দুর্গোৎসবে দর্শনার্থীরা পেয়েছিলেন মাইশোর রাজবাড়িুর স্বাদ। এইবার এখানে ঠাকুর দেখতে এলে দর্শনার্থীরা বৌদ্ধ শিল্প-সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিত হতে পারবেন বলেই দাবি আয়োজকদের।    

পূজোর মধ্যে বেশ কিছু সামাজিক কর্মকাণ্ডেও জড়িত থাকে সাহাপাড়া সর্বজনীন। দরীদ্রদের বস্ত্রদান করা হয়। এছাড়া নবমীর দিন সকলের জন্য থাকে ভো খাওয়ার ব্যবস্থা।