টিরেটি বাজারের কাছে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, তড়িঘড়ি পৌঁছলেন দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু

| Nov 26 2022, 10:11 PM IST

kolkata tiretti bazar fire

সংক্ষিপ্ত

টিরেটি বাজার এলাকায় ড্যামজেন লেনের ওই পুরনো বাড়িতে ৩ তলার ছাদের ওপরের ঘরটি স্টোররুম হিসেবে ব্যবহার করা হত বলে জানা গেছে। 

কলকাতার লালবাজার লাগোয়া টিরেটি বাজারের কাছে একটি বাড়িতে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড। আগুন লাগার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় দমকলের ৪ টি ইঞ্জিন। কিন্তু, নিমেষের মধ্যে আগুন বড় আকার ধারন করার ফলে আরও ৬টি ইঞ্জিন ডাকা হয়।

একেবারে সরু গলির একটি বাড়ির ছাদের ঘরে আগুন লেগে যাওয়ায় গলির ভেতরে দমকলের গাড়ি ঢুকতে ব্যাপক সমস্যা দেখা দেয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, যে বাড়িতে আগুন লেগেছে, সেটি প্রায় একশো বছরেরও বেশি পুরনো। কিন্তু, কীভাবে আগুন লাগল, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

Subscribe to get breaking news alerts

টিরেটি বাজার এলাকায় ড্যামজেন লেনের ওই পুরনো বাড়িতে ৩ তলার ছাদের ওপরের ঘরটি স্টোররুম হিসেবে ব্যবহার করা হত বলে জানা গেছে। বাজারের মধ্যে ঘিঞ্জি এলাকায় অনেক মানুষের বসবাদ এবং যাতায়াত সারাদিন ধরে লেগেই থাকে। আগুন লাগার খবর চাউর হতেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা এলাকা জুড়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার পর টিরেটি বাজারের ওই তিন তলা বাড়ির ওপরের অংশে আগুন দেখা যায়। তড়িঘড়ি খবর দেওয়া হয় দমকলে। ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীও। কিন্তু বাড়িতে ঢোকার রাস্তাটি প্রচণ্ড সরু এবং আশপাশ ঘিঞ্জি হওয়ায় দমকলের গাড়ি প্রথম কিছুক্ষণ ঢুকতেই পারেনি। ফলত, পাইপের মধ্যে দিয়ে ‘রিলে’ পদ্ধতিতে জল দিয়ে আগুন নেভানোর কাজ চালানো হয়েছে।

আঞ্চলিক বাসিন্দাদের সহায়তায় ওই বাড়িতে বসবাসকারী পরিবারের সদস্যদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে দিয়েছেন দমকল এবং বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর কর্মীরা। ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছেন রাজ্যের দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুও। আগুন নির্বাপণের কাজ তদারকি করে মানুষের সুরক্ষার দিকে নজরদারি চালিয়েছেন তিনি।

সূত্রের খবর, যে বাড়িতে আগুন লেগেছে সেটা প্রায় একশো বছরেরও বেশি পুরনো। প্রথমে ৩ তলার ছোট্ট ঘরে আগুন লাগলেও খুব তাড়াতাড়ি সেই আগুন বাড়ির অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়ে। বেশি ক্ষণ আগুন জ্বলতে থাকলে বাড়িটি পুরোপুরি ধসে পড়ার আশঙ্কা ছিল। কিন্তু, কীভাবে আগুন লাগল, তা এখনও স্পষ্ট করে জানা যায়নি। স্থানীয় বাসিন্দারা যেহেতু, আগুন লাগার আগে প্রচণ্ড জোরে একটি বিস্ফোরণ হওয়ার মতো শব্দ শুনতে পেয়েছিলেন, সেহেতু, তাঁদের অনেকের মতে গ্যাস সিলিন্ডার ফেটে এই ভয়ঙ্কর অগ্নিকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে। তবে দমকলের পক্ষ থেকে কোনও কারণ এখনও স্পষ্ট করে জানানো হয়নি।

ওই বাড়িতে বসবাসকারী পরিবারের দাবি, স্থানীয় প্রোমোটারদের তরফ থেকে তাঁদের কাছে প্রায়ই বাড়িটি প্রোমোটিং-এ দিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব আসত। তাঁদের দাবি, এই প্রোমোটারদের চক্রান্তেই আগুন লাগানো হয়েছে।


আরও পড়ুন-
রাজ্যপাল পদে আসার পর প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাক্ষাতে সিভি আনন্দ বোস, নয়াদিল্লিতে ২ দিনের সফর
শ্রদ্ধাকে খুন করার পর নিজেই সাইকোলজিস্টকে ফোন করেছিলেন আফতাব, তিনি কি বুঝতে পেরেছিলেন নিজের মানসিক অবস্থা?
ডিসেম্বরের আগে শীত অধরাই রইল পশ্চিমবঙ্গে, কুয়াশায় মোড়া সকাল কেটে গেলেই বাড়ছে রোদের তেজ