প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকে না থেকে অহংকারের তীব্র প্রকাশ ঘটিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর এই আচরণের জন্যই ফের বঞ্চিত হল বাংলা। এমনই দাবি মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের। তিনি একাধিক ট্যুইট করে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন। তিনি বলেন রাবণের মত আচরণ করছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

 

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে লঙ্কার রাবণের তুলনা করেন শিবরাজ সিং চৌহান। তিনি বলেন রাবণেরও একদিন অহংকারের শেষ হয়েছিল, সেখানে আপনি কোন ছাড়। জয়ের দাম্ভিকতায় মাতাল হয়ে রয়েছেন মমতা। আপনি আপনার অপকর্ম নিয়ে বাংলার গৌরবময় ইতিহাস ও গর্বকে কলুষিত করছেন। 

 

শিবরাজ বলেন, তৃণমূলের নীতিই হলো ভাঙো, মারো আর কাটো। তৃণমূল জয়ের পর মারধর ও হিংসার রাজনীতি শুরু করেছে। বিজেপি প্রার্থী ও জয়ী নেতারা মার খাচ্ছেন রাজ্যে, এবার ভারত থেকে বাংলাকে আলাদা করার রাজনীতি শুরু করেছেন মমতা। তাঁর আচরণ রীতিমত নিন্দনীয়। 

 

 

এদিন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ট্যুইট করে বলেন রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি আলাদা হতে পারে, আদর্শ ভিন্ন হতে পারে, তবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতি অসম্মান প্রকাশ করা আপনার নিকৃষ্ট চিন্তাভাবনার প্রকাশ ছাড়া আর কিছুই নয়। 

 

তবে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এই নিয়ে কোনও বিবৃতি দেওয়া না হলেও, কর্মকর্তারা বলছেন, ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের ইতিহাসে এর আগে কখনও কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রী ও রাজ্যপালের মতো উচ্চ সাংবিধানিক পদাধিকারীদের সঙ্গে এমন কুৎসিত, অসম্মানজনক ও অহঙ্কারী আচরণ করেননি। সূত্রের দাবি মুখ্যমন্ত্রীর এই আচরণ একেবারেই ভালোভাবে নেয়নি কেন্দ্র। 

এদিন ট্যুইট করেন প্রধানমন্ত্রীও। তিনি বলেন ভুবনেশ্বরে অত্যন্ত সফল বৈঠক হয়েছে ওডিশার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে। কেন্দ্র ও রাজ্য সমন্বয়ে সাইক্লোন যশের আঘাতে ক্ষতি মোকাবিলা করা হবে। কেন্দ্র সবরকম ভাবে ওডিশার সঙ্গে রয়েছে। প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলায় বরাবরই উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে এসেছে ওডিশা। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে এবার রাজ্যের পাশে রয়েছে কেন্দ্রও। 

এদিনের ট্যুইটে কোথাও নাম ছিল না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বিজেপি শিবিরের দাবি শুক্রবারের বৈঠকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী না থাকাতেই প্রধানমন্ত্রী নাম নেন নি মমতার। তবে বাংলার পাশে থাকার আশ্বাসটুকুও এবার জুটল না বলে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। মমতার এই আচরণের কড়া নিন্দা করেছেন বিভিন্ন বিজেপিশাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। শিবরাজ সিং চৌহান থেকে হিমন্ত বিশ্বশর্মা-প্রত্যেকের বার্তায় মমতার বিরুদ্ধে বক্তব্য ফুটে উঠেছে।