দ্বৈপায়ন লালা, মালদহ- মোবাইলে ইউপিআই ট্রানজাকশানের পরই অ্য়াকাউন্ট থেকে টাকা গায়েব। জালিয়াতদের খপ্পরে পড় বেশ কিছু টাকা খোয়ালেন মালদহের এক ব্যবসায়ী। ওই ব্যবসায়ীর সন্দেহ হওয়ায় পুলিশে খবর দেন তিনি। পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে ইউপিআই জালিয়াতির অভিযোগে গাজোল থেকে দুই যুবককে গ্রেফতার করে। ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় লক্ষাধিক টাকা।

পুলিশ সূত্রে খবর, ইউপিআই জালিয়াতির শিকার হন মালদহ শহরের বাসিন্দা রানা বিশ্বাস। জানাগেছে, কালুয়াদিঘিতে তাঁর একটি পেট্রোল পাম্প আছে। কয়েক দিন ধরে ওই দুই যুবক পেট্রোল পাম্পে তেল ভরতে গিয়ে ইউপিআই পেমেন্ট করত। গাড়িতে তেল ভরানোর পাশাপাশি নানা অছিলায় ইউপিআই পেমেন্ট করে নগদ টাকাও নিত তারা। এর মধ্য়েই ওই পেট্রোল পাম্প ব্য়বসায়ীর অ্য়াকাউন্ট থেকে আপনাআপনি টাকা কাটতে থাকে। ব্যবসায়ী প্রাথমিকভাবে বুঝতে পারেননি। কিছুদিন আগে ফের ওই পেট্রোল পাম্পে যায় দুই যুবক। পরিবারের কেউ অসুস্থ আছে বলে ইউপিআই পেমেন্ট করে নগদ টাকা চায়। তখনই সন্দেহ হয় ব্য়বসায়ী রানা বিশ্বাসের। পুলিশে খবর দিলে ওই দুই যুবক গ্রেফতার হয়।

মালদহ সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ দুই যুবককে আটক করার পর জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। তাদের কাছ থেকে হদিশ মেলে বেশ কিছু ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের স্ক্রিনশট এবং হোয়াটস অ্যাপে আদানপ্রদানের তথ্য়। এরপরই পুলিশ ধৃতদের জেরা করে ১ লক্ষ ৮৪ হাজার টাকা উদ্ধার করে। ওই দুই যুবক মহম্মদ তাজারাক হোসেন, মহম্মদ আসরাফুল হক, গাজোলের রাজারামপুরের বাসিন্দা।