দুর্গাপুজো এবং কালীপুজোর লম্বা ছুটির রেশ কাটিয়ে সবে কাজে যোগ দিয়েছেন রাজ্য সরকারি দফতরের কর্মীরা। এর মধ্যেই তাঁদের জন্য আগামী বছরের সুখবর শুনিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার পোস্তায় একটি জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধনে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, আগামী বছর পুজোয় টানা পনেরো দিন ছুটি পাবেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। ছুটি থাকবে ১৭ থেকে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত। 

এ বছরই চোদ্দ দিন পুজোর ছুটি পেয়েছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। আগামী বছর তা আরও একদিন বাড়ছে। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী  আগামী বছর তৃতীয়া থেকেই রাজ্য সরকারি সব দফতরে ছুটি পড়ে যাবে। কারণ আগামী বছর ২২ অক্টোবর ষষ্ঠী। আর সরকারিভাবে ছুটি পড়ে যাচ্ছে ১৯ অক্টোবর সোমবার থেকে। তার আগে ১৭ এবং ১৮ অক্টোবর যেহেতু শনি এবং রবিবার পড়েছে, তাই সেদিন থেকেই রাজ্য সরকারি দফতরে ছুটি পড়ে যাবে। যা চলবে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত।

এ বছর পুজোর লক্ষ্মীপুজো পর্যন্ত টানা ছুটি ছাড়াও কালীপুজো এবং ভাইফোঁটাতেও চারদিন ছুটি পেয়েছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। তার পর পরই আগামী বছরের ছুটির বিজ্ঞপ্তি জারি করে দিয়েছে নবান্ন। বৃহস্পতিবার সেই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ীই ছুটির খবর শোনালেন মুখ্যমন্ত্রী। 

আরও পড়ুন- 'ভুঁড়িটা কি বেড়েছে', শোভনের সঙ্গে কী কী কথা হল মমতার

আরও পড়ুন- একদিকে যেমন রাজ্য়ও সামলান, রান্নাও করেন দারুন, তিনি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী

ছুটি দেওয়ার ক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রী বরাবরই দরাজ। এ দিনও তিনি বলেন, 'ভাল কাজ করার জন্য মস্তিষ্কের বিশ্রাম প্রয়োজন। ৩৬৫ দিন কাজ করতে গেলে তো কয়েক দিন ছুটি লাগবেই। তাই মস্তিষ্কের বিশ্রামের জন্য আমি একটু বেশিই ছুটি দিই।'