ফের প্রদানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দমদম অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরির বিলগ্নিকরণের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী এই চিঠি লিখেছেন বলে খবর। 

আরও পডড়ুন- পুজো কমিটির উপরে আয়কর-এর নজরদারি, ক্ষিপ্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তোপ

চিঠিতে মমতা লিখেছেন, দমদম অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরির বিলগ্নিকরণের কথা তাঁর কানেও এসেছে। কিন্তু যেহেতু এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে দেশের নিরাপত্তার বিষয়টি জড়িয়ে রয়েছে, তাই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য তিনি চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করেছেন বলে খবর। যদিও, এই চিঠির বিষয়ে এখনও সরকারিভাবে মুখ্যমন্ত্রী বা রাজ্যের তরফে এখনও কিছু জানানো হয়নি। 

রবিবার একুশে জুলাই সমাবেশের মঞ্চ থেকেও কেন্দ্রের বিলগ্নিকরণ নীতির বিরোধিতায় সরব হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের নীতিকে তীব্র আক্রমণ করে তিনি বলেছিলেন, গোটা দেশকেই বেচে দেওয়ার চক্রান্ত করেছে মোদী সরকার। এবার অবশ্য সরকারিভাবেই কেন্দ্রের বিলগ্নিকরণ নীতির বিরোধিতা করলেন মমতা। আর কা করতে দেশের নিরাপত্তার মতো সংবেদনশীল ইস্যুকেই ঢাল করলেন তিনি। 

তৃণমূলের অন্দরের খবর, অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি, চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার বিলগ্নিকরণের সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় সংসদেও দলের সাংসদদের সরব হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিলগ্নিকরণ ইস্যুকে হাতিয়ার করেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে জোরদার প্রচারে নামতে চাইছ তৃণমূল। তারই প্রথম ধাপ হিসেবে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলেন মমতা। ফলে এই চিঠির রাজনৈতিক তাৎপর্য্যও যথেষ্টই। এখন দেখার এই চাপ সামলাতে কী কৌশল নেয় নরেন্দ্র মোদী সরকার।