আগে ভরসা ছিল নোটবুক আর কলম। কিন্তু এখন যে পকেটে থাকা ছোট্ট যন্ত্রটাই সব সমস্যার সমাধান। অন্য অনেক চাকরির মতো সংবাদমাধ্যমের কর্মীদের বড় ভরসা  মোবাইল ফোন। খবর সংগ্রহ করা থেকে তা সময় মতো দফতরে পাঠানো, ওই একটি যন্ত্র ঠিক থারলে সব ঠিক। তাই এবার  নিজেদের দু' চাকা অথবা চার চাকা গাড়ির সঙ্গেই উত্তর দিনাজপুরের সাংবাদিকরা বিশ্বকর্মা পুজোর দিন নিজেদের মোবাইল ফোনেরও পুজো করলেন উত্তর দিনাজপুর প্রেস ক্লাবে। 

'কারিগরি দেবতা ' বিশ্বকর্মার আরাধনায় মাতোয়ারা সারা রাজ্য। বুধবার সকাল থেকেই রায়গঞ্জ শহরের বিভিন্ন পুজোর প্যান্ডেলে সাধারণ মানুষ নিজেদের বাইক,স্কুটার গাড়ির পূজা দিতে ভিড় জমিয়ে ছিলেন। একটু ভিন্ন ছবি দেখা গেল উত্তর দিনাজপুর প্রেসক্লাবে। গাড়ি,বাইকের পুজোর আগে প্রথমে সেখানে সদস্যদের মোবাইল ফোনের পুজো করা হয়। ভোগের থালায় মোবাইল ফোনগুলি সাজিয়ে বিশ্বকর্মার সামনে সেইগুলি পুজো দেওয়া হয়। মোবাইলের পরে অবশ্য বাইক ও গাড়ির পূজো হয়।

জেলা প্রেস ক্লাবের সদস্য এক সাংবাদিকের কথা,'বর্তমানে আমাদের পূরো চাকরিটাই মোবাইল ফোনের ভরসায় টিকে রয়েছে। সোর্স মারফত খবর পাওয়া, খবর খুঁজে বের করা. হোয়াইটস অ্যাপের মাধ্যমে ছবি জোগাড় করা, তা  অফিসে পাঠানো, এ সবকিছুতেই মোবাইল ফোন ভরসা। সেই কারণে মোবাইল ফোনের পুজোই আমরা প্রথমে করেছি। মোবাইল ঠিক থাকলেই আমাদের চাকরি থেকে শুরু করে সবকিছুই ঠিক থাকবে।