বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাল হত্যাকাণ্ডে আগেই স্বস্তি পেয়েছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। এবার এই মামলার জেরে তাঁর নদিয়া জেলায় প্রবেশের উপরে যে নিষেধাজ্ঞা ছিল, তাও প্রত্যাহার করে নিল আদালত। 

এ বছর সরস্বতী পুজোর আগের দিন খুন হন নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস। সেই খুনের ঘটনায় ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে মুকুল রায়ের নামে অভিযোগ দায়ের করে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। এর পাল্টা হিসেবে কলকাতা হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করেন মুকুল রায়। সেই মামলাতেই মুকুলকে গ্রেফতার না করার নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি নদিয়া জেলাতে মুকুল প্রবেশ করতে পারবেন না বলেও জানিয়েছিল আদালত। 

কিন্তু গত মে মাসে বিধায়ক খুনের ঘটনায় সিআইডি যে চার্জশিট জমা দেয় আদালতে, তাতে অভিযুক্ত হিসেবে মুকুল রায়ের নাম ছিল না। সেই কারণেই এই মামলা থেকে আপাতত অব্যাহতি পেলেন মুকুল রায়। এ দিন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি জয়মাল্য বাগচির ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, নদিয়ায় প্রবেশের ক্ষেত্রে মুকুল রায়ের উপরে আর কোনও নিষেধাজ্ঞা থাকছে না।  বিজেপি নেতার আইনজীবী শুভাশিস দাশগুপ্ত জানিয়েছেন, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হওয়ায় এবং চার্জশিটে মুকুলের নাম না থাকায় বিজেপি নেতার দায়ের করা আগাম জামিনের মামলাটিও তাঁরা প্রত্যাহার করে নিচ্ছেন। তবে ভবিষ্যতে এই খুনের ঘটনায় ফের পুলিশ বা সিআইডি মুকুলকে জড়ালে তাঁরা যাতে ফের আদালতে আবেদনের সুযোগ পান, সেই অনুমতিও এ দিন আদালতের কাছে চান মুকুলের আইনজীবী।