খড়গপুর সদর বিধানসভা গত তিন বছর ধরে ছিল বিজেপির হাতে। ওই সময় রেল- পৌরসভা এবং বিজেপি বিধায়কের সম্পর্কে একটা ভারসাম্য বজায় ছিল। তবে তেমন কোনও উন্নয়নমূলক কাজ খড়গপুর শহরে করা যায়নি। বিজেপির হাত থেকে বিধানসভা এলাকা ছিনিয়ে নিয়ে একাধিক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাজে নামার আগেই রেলের সঙ্গে সংঘাত লাগল পুরসভার।

জানা গিয়েছে, খড়গপুর শহরের রেলওয়ে এলাকাতে পৌরসভার পক্ষ থেকে লাগানো ১৩ টি লাইটপোস্ট কেটে ফেলে দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। খড়গপুর পৌরসভার অন্তর্গত ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাউথ সাইড এলাকাতে আলোকিত করার জন্য বেশকিছু লোহার লাইটপোস্ট লাগিয়েছিল খড়গপুর পৌরসভা। গত শনিবার রাতে সেই লাইটপোস্টগুলি কেটে ফেলে দেয় রেল দফতর। রেলের বক্তব্য, তাদের এলাকাতে অবৈধভাবে পৌরসভার পক্ষ থেকে এই লাইটপোস্ট লাগানো হয়েছিল। তাই বিনা অনুমতিতে লাগানো এই লাইটপোস্ট কেটে দেওয়া হয়েছে। 

বিষয়টি জানাজানি হতেই পাল্টা আইনি পদক্ষেপের যাওয়ার হুমকি দিয়েছেন খড়গপুর পৌরসভার পৌর প্রধান তথা নবনির্বাচিত বিধায়ক প্রদীপ সরকার। তিনি বলেন, রেল নিজে ওই পৌর এলাকাগুলিতে কোনও উন্নয়নের কাজ করছে না। আমাদেরও করতে দিচ্ছে না। পৌরসভার সরকারি সম্পত্তি এভাবে নষ্ট করার আগে কমপক্ষে নোটিশ দেওয়ার প্রয়োজন থাকে। 

সেসব না করেই বেআইনিভাবে এই ক্ষতি করা হয়েছে। এর বিরুদ্ধে এফআইআর করব আমরা। এসব আর কিছুই না, বিজেপি এখানে হেরে গিয়ে রেল কে দিয়ে এগুলো করাচ্ছে। এই ঘটনাকে ঘিরে চাপানউতোর শুরু হয়েছে পৌরসভা ও রেলওয়েজ-এর মধ্যে।