অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর পাশে দাঁড়ালেন কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। রবিবার অধীর রঞ্জন চৌধুরী রিয়া চক্রবর্তীকে কোনও রকম হয়রানি না করেই মুক্তি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন। শনিবার দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সের (এইমস) চিকিৎসকরা সুশান্ত-এর হত্যার সম্ভাবনা প্রত্যাখ্যান করে একে আত্মহত্যার মামলা বলে উল্লেখ করেছেন।

অধীর রঞ্জন চৌধুরী সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে সম্পর্কিত রিয়ার গ্রেপ্তারের কিছুদিন আগে বলেছিলেন যে, অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে এই ঘটনায় ইচ্ছাকৃতভাবে জড়ানো হচ্ছে। এই বিষয়ে অধীর রঞ্জন চৌধুরী টুইটারে পোস্ট করেছেন, অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। রাজ্য কংগ্রেসের প্রধান টুইট করেছেন, "এখন বিজেপির সদস্যরা এআইএমএস-এর ফরেনসিক দলকে অভিযুক্ত করতে পারে, সুশান্ত সিং রাজপুত হত্যার জন্য রিয়া চক্রবর্তী দায়ী এই অভিযোগটি বাতিল করার জন্য।"

অধীর রঞ্জন চৌধুরী এই বিষয়ে আরও বলেছেন, "সুশান্ত এর মৃত্যুতে আমরা সবাই দুঃখিত, কিন্তু একজন নারীকে অভিযুক্ত হিসাবে জড়িয়ে দিয়ে সুশান্ত-কে সম্মানিত করা যায় না।" আমি ইতিমধ্যে বলেছি যে রিয়া চক্রবর্তী একজন নির্দোষ মহিলা, তাকে আরও হয়রানি না করে মুক্তি দেওয়া উচিত, তিনি রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন।" রিয়া চক্রবর্তী এনসিবি কর্তৃক ২ সেপ্টেম্বর গ্রেপ্তার হয়েছিল। তাৎপর্যপূর্ণভাবে, সিবিআইয়ের কাছে তার সামগ্রিক চিকিত্সা-আইনী মতামতে, ফরেনসিক ডাক্তারদের একটি ছয় সদস্যের দল সুশান্ত রাজপুতকে বিষ ও গলা টিপে হত্যা করার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছে।