এবার বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর বিরুদ্ধেই কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ উঠল। তাও আবার দলের কর্মীদের নামে পোস্টার দিয়েই সেই অভিযোগ তোলা হল। অভিযোগ, নির্বাচনের খরচ বাবদ ২ কোটি টাকা পেয়ে তা খরচ না করে আত্মসাৎ করেছেন সায়ন্তন বসু- সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা। 

গত লোকসভা নির্বাচনে বসিরহাট কেন্দ্র থেকে বিজেপি প্রার্থী হন সায়ন্তন। তৃণমূলের নুসরত জাহানের কাছে তিনি পরাজিতও হন। এ দিন বসিরহাটের শরৎ বিশ্বাস রোড-সহ শহরের বিভিন্ন জায়গায় সায়ন্ত বসুর বিরুদ্ধে এই পোস্টার দেখা যায়। তাতে অভিযোগ করা হয়, নির্বাচনে খরচের জন্য দলের তহবিল থেকে দু' কোটি টাকা দেওয়া হয়েছিল। অথচ বসিরহাট এলাকার বিজেপি কর্মীদের দেওয়াল লিখন, পোস্টার ছাপানোর মতো খরচও দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করা হয়েছে পোস্টারে। 

আরও পড়ুন- বাড়ি বাড়ি গিয়ে কাটমানি ফেরালেন বাঁকুড়ার তৃণমূল নেতা, দেখুন ভিডিও

পোস্টারে আরও দাবি করা হয়েছে রাজ্য বিজেপি নেতা সুব্রত চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও বসিরহাট সাংগঠনিক জেলা সভাপতি গণেশ ঘোষ, দুলাল সরকারদের মতো বেশ কিছু নেতাকে তিনি টাকার ভাগ দিয়েছেন সায়ন্তন। এই পোস্টার নজরে আসতেই এলাকার বিজেপি কর্মীদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। 

এ বিষয়ে সায়ন্তন বসুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি জানেন না বলেই দাবি করেন। ফলে, কোনও প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি তিনি। 

বসিরহাট জেলার সাংগঠনিক সভাপতি গণেশ ঘোষের অবশ্য দাবি, এই ধরনের কোনও অভিযোগ তাঁর কাছে কেউ করেনি। দলের যে কর্মীরা সায়ন্তন প্রার্থী হওয়ার পরে বিরোধিতা করেছিলেন, তাঁরাই এই পোস্টার লাগিয়েছে। নির্দিষ্ট অভিযোগ থাকলে তা লিখিত ভাবে জানানোর দাবি করেছেন ওই বিজেপি নেতা।