শ্বশুরকে লক্ষ্য করে গুলি চালালো জামাই। ঘটনায় নিহত মোক্তার শেখ নামে বছর পঞ্চাশের ওই ব্যক্তি। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ন'টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে ডায়মন্ড হারবারের চাঁদপুরের কাছে ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়কে। গুরুতর জখম অবস্থায় মোক্তার শেখ নামে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ডায়মন্ড হারবার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় চিকিৎসার জন্য। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে কলকাতার হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে রাতভার চিকিৎসার পরে মারা যান আক্রান্ত মোক্তার শেখ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, বেশ কিছুদিন ধরেই জামাই হারুন সর্দারের সঙ্গে ঝামেলা চলছিল মোক্তার শেখের। অত্যাচার করায় জামাইয়ের কাছ থেকে মেয়েকে বাড়িতে ফিরিয়ে এনেছিলেন মোক্তার। জামাইয়ের সঙ্গে তাঁর মেয়ের বিবাহবিচ্ছেদের মামলা ও চলছে। সেই কারণে শ্বশুরের উপর রাগ জমেছিল হারুনের। মঙ্গলবার রাতে মোক্তার নিজের কর্মস্থল থেকে স্কুটি চালিয়ে ডায়মন্ড হারবারের মোহনপুরের বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় পিছন থেকে হারুন ও তার এক সঙ্গী মোক্তারকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। গুলি লাগে মোক্তারের পিঠে। 

ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। শ্বশুরকে গুলি করেই পালিয়ে যায় হারুন ও তার সঙ্গী। স্থানীয় মানুষজন গুরুতর জখম অবস্থায় মোক্তারকে উদ্ধার করে ডায়মন্ড হারবার সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। খবর পেয়ে ডায়মন্ড হারবার থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। পাশাপাশি অভিযুক্ত হারুনের খোঁজেও তল্লাশি শুরু করে পুলিশ।

কিন্তু এ দিন সকালে আহত মোক্তার শেখের মৃত্যুর খবর পৌঁছতেই ক্ষোভে ফেটে পড়়েন এলাকার বাসিন্দারা। দোষীদের গ্রেফতারি এবং শাস্তির দাবিতে এলাকায় পথ অবরোধ শুরু করেন তাঁরা। ডায়মন্ডহারবার থানার পুলিশ গিয়ে তাঁদের বোঝানোর চেষ্টা করছে।