দীর্ঘ করোনা কাল কাটিয়ে ওঠার পরেও খড়গপুর আইআইটির ৪ টি গেট না খোলার প্রতিবাদে খড়গপুর আইআইটির গেটের সামনে প্রবল বিক্ষোভ স্থানীয়দের। বিক্ষোভের জেরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে খড়্গপুর টাউন থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন, 'প্রকৃত মানুষ গড়ার কারিগর বিশ্বভারতী', সমাবর্তনে বার্তা মোদীর, এদিকে নেই ছাত্রছাত্রীরাই  

 

 স্থানীয়দের দাবি, করোণার কারণে গত বছরের মাঝামাঝির দিকে বন্ধ করে দেওয়া হয় আইআইটি খড়গপুরের সবকটি প্রবেশদ্বার। করোনা কাল কাটিয়ে ওঠার পরে নিরাপত্তার খাতিরে বন্ধ করে দেওয়া হয় খড়গপুর আইআইটির চারটি গেট। আইআইটি ক্যাম্পাসের ভেতরে যাতায়াতের জন্য প্রত্যেকেই ব্যবহার করতে হয় মূল ফটক। স্থানীয়দের অভিযোগ, আইআইটির ৪টি গেটই বন্ধ থাকার ফলে চরম সমস্যায় পড়তে হচ্ছে আইআইটির ভেতরে থাকা স্কুলের ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে আইআইটির ভেতরের মার্কেটের ব্যবসায়ী ও স্থানীয়দের। অবিলম্বে প্রত্যেকটি গেট খোলার দাবি নিয়ে বিক্ষোভ আইআইটির গেটের সামনেই। বিক্ষোভের জেরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে খড়্গপুর টাউন থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন, পায়ের অপারেশন শেষ জাকিরের, শরীরের ৩ জায়গায় হবে প্লাস্টিক সার্জারি, আজই নিমতিতা যাচ্ছে NIA  


বিক্ষোভরত ছাত্র ছাত্রীদের অভিযোগ, আইআইটির ভেতরে থাকা বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র ছাত্রী দের খোলা থাকা মূল ফটক দিয়ে যেতে গেলে প্রায় আট কিলোমিটার ঘুরে যেতে হয়। বাইপাস রাস্তায় থাকে দুর্ঘটনার ঝুঁকি। কিন্তু ১২ তারিখ রাজ্য সরকারের নির্দেশে সমস্ত স্কুলের পাশাপাশি আইআইটির ভেতরে থাকা স্কুলগুলি খুললেও গেটগুলি বন্ধ থাকার কারনে তাদের ঝুঁকি নিয়ে প্রায় পাঁচ থেকে আট কিলোমিটার ঘুরে যেতে হচ্ছে। বারবার কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে কর্তৃপক্ষ করোনার সংক্রমণ থেকে সুরক্ষার কারন দেখিয়ে গেটগুলি বন্ধ রেখেছে। ফলে একপ্রকার নিরুপায় হয়ে পড়ুয়ারা মুল গেটের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ চালাচ্ছে। যতক্ষণ না তাদের দাবী মেনে বাকি গেট খুলে না দেওয়া হয় ততক্ষণ তাদের এই অবরোধ চলবে বলে জানিয়েছে পড়ুয়ারা।