নন্দীগ্রাম থেকে আগামী বছর বিধানসভা নির্বাচনে না লড়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেই 'পরামর্শ' গ্রহণ করে দিলীপবাবুকে পাল্টা শর্ত দিলেন পরিবহণমন্ত্রী। তাঁর পাল্টা চ্যালেঞ্জ, দিলীপ ঘোষের পছন্দ করে দেওয়া যে কোনও কেন্দ্র থেকেই তিনি লড়তে রাজি। শুধু প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকতে হবে দিলীপ ঘোষকেই। 

গত শনিবার নন্দীগ্রামে অভিনন্দন যাত্রা ছিল বিজেপি-র। কিন্তু নন্দীগ্রামে ঢোকার মুখেই দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বাধীন বিজেপি-র মিছিলকে আটকায় পুলিশ। দিলীপ ঘোষ পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে বলেন, এর পরে তিনি নন্দীগ্রামে ঢুকবেনই। একই সঙ্গে নন্দীগ্রামের বিধায়ক রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রীকে তিনি আগামী নির্বাচনে ওই কেন্দ্র থেকে না লড়ার পরামর্শ দেন মেদিনীপুরের সাংসদ। 

আরও পড়ুন- নন্দীগ্রামে বিজেপি-র মিছিলে লাঠিচার্জ, হুমকি দিয়ে ফিরলেন দিলীপ, দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন- প্রমাণ চাইলে দিলীপ ঘোষকে থাপ্পর মারুন, তৃণমূলের জেলা সভাপতির নিদান

এ দিন নন্দীগ্রামেই তৃণমূলের পাল্টা জনসভা থেকে বিজেপি রাজ্য সভাপতিকে জবাব দেন শুভেন্দু। দিলীপবাবুর নাম না নিয়েই শুভেন্দু বলেন, 'মেদিনীপুরের সাংসদ আমায় পরামর্শ দিয়ে গিয়েছেন এই কেন্দ্র থেকে না লড়তে। ওনার পরামর্শ আমি গ্রহণ করছি। উনিই ঠিক করুন আমি কোন কেন্দ্র থেকে লড়ব। এমন কেন্দ্র বাছুন যেটা আমার পক্ষে সবথেকে কঠিন হয়। কিন্তু শর্ত একটাই। ওনাকে আমার বিরুদ্ধে লড়তে হবে।'

নন্দীগ্রাম শুভেন্দু অধিকারীর কাছে কার্যত সম্মানের লড়াই। রাজ্য রাজনীতির অন্যতম আলোচিত এই কেন্দ্রে যে পরিবহণমন্ত্রী বিজেপি-কে দাঁত ফোটাতে দেবেন না স্পষ্ট। ফলে ২০২১ সালের নির্বাচনের আগে নন্দীগ্রামকে কেন্দ্র করে রাজুনৈতিক উত্তার যে বাড়বে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।