নির্বাচন শেষ হলেও, রাজনৈতিক হিংসার শেষ নেই। এবার দিনে দুপুরে  বোমাবাজির ঘটনা ঘটল। ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত ভাটপাড়া পৌরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের গোলঘর তিন নম্বর কেবিন রোড এলাকায় বোমাবাজি করল দুষ্কৃতীরা বলে অভিযোগ। 

এক বিজেপি কর্মীর বাড়িতে দিনে-দুপুরে ব্যাপক বোমাবাজি করা হয় বলে অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন বাইক নিয়ে এসে বেশ কয়েক জন দুষ্কৃতী তার বাড়িতে পরপর তিন থেকে চারটি বোমা ছোঁড়ে। এই বোমাবাজির ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিজেপি কর্মীর বাড়ি। 

এই ঘটনায় আতঙ্কিত ওই বিজেপি কর্মী শ্যাম নারায়ণ চৌধুরী ও তার পরিবার। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় জগদ্দল থানার পুলিশ। তারা ঘটনার তদন্ত করে দেখছে কে বা কারা এই ঘটনায় যুক্ত। তবে ওই বিজেপি কর্মীর অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তার বাড়িতে বোমাবাজি করেছে।

এদিকে, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় তৃণমূল হামলা চালাচ্ছে বলে একাধিকবার অভিযোগ করেছে বিজেপি। তবে তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় এসেই রাজ্যে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার আবেদন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৫ই মে অর্থাৎ বুধবার রাজভবনে শপথ নেওয়ার পরে নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করেন মমতা। এদিন আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য বিশেষ বৈঠকও করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠকে ছিলেন ডিজি ও এডিজিরা। 

এদিন মমতা বলেন রাজ্যে বেশ কিছু জায়গায় আইন শৃঙ্খলার অবনতির ঘটনা রাজ্য প্রশাসনের নজরে এসেছে। কোনও রকমের বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবে না বলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন। এদিন তিনি বলেন রাজ্যের যে সব এলাকায় বিজেপি জিতেছে, সেখানে অনেক রকম ঘটনা ঘটছে। রাজ্য প্রশাসনের নজরে রয়েছে এই বিষয়গুলি। এতদিন রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নির্বাচন কমিশনের আওতায় ছিল, রাজ্য সরকার কিছু করে উঠতে পারেনি। কিন্তু এবার কড়া হাতে এই ধরণের ঘটনার মোকাবিলা করবে রাজ্য সরকার। তিন মাস ধরে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। সেইসব মেরামত করতে হবে। এটা বড়ো চ্যালেঞ্জ রাজ্য সরকারের কাছে। 

নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন, বিজেপির ওপর আক্রমণ হচ্ছে বলে বেশ কিছু প্রচার ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে, যা দেখা গিয়েছে একেবারেই ভুয়ো। সব পুরোনো ঘটনাকে নতুনের মত করে সামনে তুলে ধরে প্রকাশ করা হচ্ছে। এদিন রাজ্যবাসীর কাছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবেদন করেন, যাতে এই ধরণের ভুয়ো ভিডিওতে কেউ বিশ্বাস না করেন।