শুভদীপ পুততুন্ডু, বারাসাত: সম্পত্তির লোভে মা-বাবার ওপরে অত্যাচার নতুন ঘটনা নয়। হামেশাই শোনা যায় এমন ঘটনা। এবার আরও একবার তেমনই ঘটনা ঘটল বসিরহাট মহাকুমার হাসনাবাদ থানার শিমুলিয়া গ্রামে। মনসুরা বিবি (৮০) -কে বহুদিন ধরেই মারধর করে তাঁর বড় ছেলে রবিউল সরদার ও মেজো ছেলে আমিরুল সরদার। স্বামী রবিউলের সঙ্গে শাশুড়ির ওপর অত্যাচার করে বৃদ্ধার বড় বৌমা শাহানারা বিবিও। এমনটাই অভিযোগ উঠেছে।

আরও পড়ুন: বৃদ্ধার ওপর ছেলে-বউয়ের অত্যাচার, মা-বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করল ছেলেই

১৩ বছর আগে বৃদ্ধার স্বামী মারা যান। এখন ওই শেষ সম্বল বলতে ১০ কাটা জমি। আর সেই জমিই জোর করে লিখিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে তাঁর দুই ছেলে ও বৌমা। আর তাতেই বৃদ্ধা রাজি না হওয়ায় এলোপাথাড়ি চড়, ঘুষি, লাথি মারতে শুরু করে তাঁর ছেলেরা। এমনকি তার ছোট ছেলে মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় তাঁকে মারধর করে বলে অভিযোগ। বর্তমানে বৃদ্ধা মা ও তাঁর ছোট ছেলে সেলিম সরদার টাকি গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 

আরও পড়ুন: ছেলের অত্যাচারে অতিষ্ঠ, গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা মা-বাবার

এই ঘটনার জেরে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। এর আগে একবার জোর করেই এক বিঘা জমি লিখিয়ে নিয়েছিল বড় ছেলে ও বৌমা। এখন তাঁর শেষ সম্বল ওই ১০ কাটা জমি, এখন সেটাও লিখিয়ে দেয়ার জন্য কয়েক মাস ধরেই চাপ সৃষ্টি করছে ওই বৃদ্ধার ছেলেরা। এর আগেও ওই বৃদ্ধার ছেলেদের সঙ্গে বেশ কয়েকবার বচসা হয়েছে। এমনকি তাঁরা তাদের বৃদ্ধা মা-কে মারধর করে। বিধবা বৃদ্ধা মা -কে তাঁর ছেলেরা যেভাবে মারধর করেছে তাতে দুই ছেলে-বৌমার বিরুদ্ধে কঠিন শাস্তির দাবি জানিয়েছে স্থানীয় গ্রামবাসীরা। বৃদ্ধা মনসুরা বিবির অবস্থা এখন আশঙ্কাজনক। দুই ছেলে ও বৌমার বিরুদ্ধে হাসনাবাদ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হাসনাবাদ থানার পুলিশ।