উত্তরপূর্ব ভারতে প্রবেশ করেছে মৌসুমী বায়ু। তার ফলে দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় শুরু হয়েছে প্রাক বর্ষার বৃষ্টিপাত। বৃহস্পতিবার উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে। 

দক্ষিণবঙ্গের দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, নদিয়া, পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে সন্ধের দিকে বৃষ্টি হবে। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং এবং জলপাইগুড়িতে বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে বলে জানানো হয়েছে। হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে, মৌসুমী বায়ুর গতিবিধি দেখে বোঝা যাচ্ছে যে আগামী দু তিনদিনের মধ্যেই রাজ্যে প্রবেশ করবে বর্ষা। সব ঠিক থাকলে ১২ থেকে ১৩ জুন রাজ্যে মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করবে। 

শুক্রবার উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হতে পারে। আর তার মাধ্যমেই রাজ্যে বর্ষা প্রবেশ করতে পারে। এর ফলে বুধবার থেকে রবিবার পর্যন্ত রাজ্যে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। শুক্রবার পর্যন্ত গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে বজ্রপাতের সম্ভাবনাও রয়েছে। 

শুক্রবার বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরির অনুকূল পরিস্থিতির থাকায় সমুদ্র উত্তাল থাকবে। ওই সময় মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। জারি করা হয়েছে লাল সতর্কতাও।

ইতিমধ্যেই বর্ষা প্রবেশ করেছে কেরালায়। আর নিম্নচাপের হাত ধরে বাংলায় বর্ষা প্রবেশ করেছে চলেছে বলে হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে। তবে এবছর বর্ষা স্বাভাবিক হবে বলেই ইন্ডিয়া মেটেরোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্টের তরফে জানানো হয়েছে। আর সব ঠিক থাকলে পরপর টানা তিনবছর দেশে স্বাভাবিক হতে চলেছে বর্ষা।