যেমনটা আশঙ্কা করা হয়েছিলো ঠিক তেমনটাই হলো। ভিনরাজ্য় থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেন আসার সঙ্গেসঙ্গেই তিনজন করোনা পজিটিভ পরিযায়ী শ্রমিকের খোঁজ মিললো পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদলে।

এই মূহূর্তে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া এক লাখ ছাড়িয়েছে। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত রাজ্য়গুলির মধ্য়ে রয়েছে মহারাষ্ট্র, গুজরাত-সহ পশ্চিমবঙ্গও। এই রাজ্য়ের এক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত। এই পরিস্থিতিতে আরও এক দফা লকডাউন বাড়তে চলেছে বলেই অনুমান করা হচ্ছে।

রাজ্য়ে গত দুদিন ধরে পরিযায়ী শ্রমিকরা আসতে শুরু করে দিয়েছেন ট্রেনে করে।  আর সেই সঙ্গে আশঙ্কা ছড়িয়েছে, হয়তো-বা সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়বে রাজ্য়ে। এমতাবস্থায়, পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদলে পাওয়া গেলো তিনজন করোনা পজিটিভ রোগীর খোঁজ। মাসখানেক আগে মহিষাদলের পূর্ব শ্রীরামপুরে এক করোনা পজিটিভ রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছিলো। এই নিয়ে মাসখানেকের ভেতর আবারও করোনা সংক্রমিতের  খোঁজ মেলায় স্থানীয়রা যথেষ্ট চিন্তিত।

জানা গিয়েছে, মহিষাদল থানার গোপালপুর, ঘাগরা, বাবুরহাট গ্রামে তিনজন করোনা পজিটিভ রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। ওই তিন আক্রান্তকে  পাঁশকুড়ার বড়মা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আক্রান্ত তিনজনই পরিযায়ী শ্রমিক বলে জানিয়েছেন পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক পার্থ ঘোষ। স্থানীয়দের দাবি, পরিযায়ী শ্রমিকদের যথাযথ স্বাস্থ্য় পরীক্ষা করা হোক। প্রয়োজনে তাঁদের কোয়ারিন্টিনে রাখা হোক।