ফেসবুকে কুরুচিকর মন্তব্য করে গ্রেফতার তৃণমূল নেতা। বসিরহাট মহকুমা স্বরূপনগর ব্লকের বাঁকড়া গোপালপুর গ্রামের দাপুটে নেতা দেবাশিস মণ্ডল। তৃণমূলের  নেতামন্ত্রী ও সভাধিপতিদের উদ্দেশে আপত্তিকর পোস্ট করে গ্রেফতার হন তিনি। 

অভিযোগ, রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, উত্তর ২৪ পরগণা জেলার সভাধিপতি বীণা মণ্ডল-সহ তিন জনের উদ্দেশে ফেসবুকে তিনি কুরুচিকর মন্তব্য করেন দেবাশিস মণ্ডল। স্বরূপনগর থানায় জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগের ভিত্তিতে তথা সভাধিপতি বীণা মণ্ডল ও তাঁর স্বামী অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় তৃণমূল নেতাকে।

দেবাশিস মণ্ডল ফেসবুকে কয়েকজন নেতামন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে লেখেন, কুকুর ছাগলকে স্টেজে তুললে কি আর তৃণমূল কংগ্রেস লিড পাবে! বনগাঁ লোকসভা প্রসঙ্গে। 

প্রসঙ্গত, ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে বনগাঁ কেন্দ্র থেকে জয়ী হন বিজেপির শান্তনু ঠাকুর। ২০১৪-য় এই আসন ছিল তৃণমূলের দখলে। কিন্তু এবার গেরুয়া শিবির ঘাঁটি গেড়েছে এই কেন্দ্রে। এই  প্রসঙ্গেই তৃণমূলের নেতামন্ত্রীদের কুরুচিকর ভাষায় তোপ দাগেন দেবাশিস। দেবাশিসের দাবি এবারের লোকসভা নির্বাচনে বনগাঁয় তৃণমূল প্রার্থী মমতা বালা ঠাকুরের পরাজয়ের পিছনে দায়ী তৃণমূলের তিন নেতা মন্ত্রী