'বাবা আর ভাই সাংসদ। নিজে বিধায়ক এবং মন্ত্রী। ছোটোভাই পৌরসভার চেয়ারম্য়ান।' শুভেন্দু অধিকারীর খোলা চিঠির জবাবে 'ব্যক্তিস্বার্থ রক্ষা' বা পরিবারতন্ত্র-এর আক্রমণ তাঁর দিকেই ফিরিয়ে দিলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সৌগত রায়। সেইসঙ্গে শুভেন্দু সাড়ে চার বছর সেচ এবং পরিবহনের মতো দুটি দপ্তরের মন্ত্রী থেকে শুভেন্দু অধিকারী কী কাজ করেছেন, সেই বিষয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল সাংসদ।

এদিন বিজেপি-তে যোগদানের আগে রাজ্যবাসী তথা তৃণমূল কর্মীদের উদ্দেশ্যে একটি খোলা চিঠি লেখেন। সেখানে তিনি বলেন, তিনি রাজ্যে পরিবর্তনের জন্য সংগ্রাম ককরে নেতা হয়েছিলেন। কিন্তু গত ১০ বছরে তৃণমূলে শুধুই ব্যক্তিস্বার্থ দেখা হয়েছে, তাই রাজ্য়ের অবস্থার কোনও পরিবর্তনই হয়নি। তারই জবাবে সৌগত রায় এই কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, শুভেন্দু অধিকারীর এই চিঠি অত্যন্ত 'জোলো'। শুভেন্দু রাজ্যের জন্য কিছু করেননি বলে রাজ্যবাসীও তাঁর কাছ থেকে উন্নয়নের কোনও কথা শুনতে চান না বলে দাবি করেন তৃণমূল সাংসদ। তিনি আরও বলেন এই খোলা চিঠি তৃণমূল কর্মীরা ডাস্টবিনে ফেলে দেবেন।

সৌগত রায় আরও বলেন, শুভেন্দুর চিঠিতে কোনও আবেগ নেই। তাঁর দল পরিবর্তন অর্থের প্রলোভনে বলেও দাবি করেন তিনি। বলেন, শুভেন্দু খোলা চিঠি দিয়ে বরং জানান, কত দেনা-পাওনার ভিত্তিতে তিনি দল পরিবর্তন করেছেন।