নিজস্ব সংবাদদাতা, দার্জিলিং ও হুগলি: প্রাণঘাতী সেলফি। আর তার জেরেই প্রাণ গেল পর্যটকের। এ বার ঝুঁকি নিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে দার্জিলিংয়ে টয়ট্রেন থেকে পড়ে মৃত্যু হল এক পর্যটকের। মৃত প্রদীপ সাক্সেনা (৫০) হুগলির রিষড়ার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। 

পুলিশ সূত্রে খবর, পরিবারের সঙ্গে দার্জিলিং বেড়াতে এসেছিলেন প্রদীপবাবু।  এ দিন বিকেলে দার্জিলিং থেকে সপরিবারে টয়ট্রেনের জয় রাইডে সওয়ার হন তিনি। দার্জিলিং এবং ঘুমের মাঝে বিপজ্জনকভাবে দরজার থেকে শরীর বের করে সেলফি তোলার চেষ্টা করেন ওই পর্যটক। তখনই দেহের ভারসাম্য হারিয়ে ট্রেন থেকে পড়ে যান তিনি। মাথায় গুরুতর চোট লাগে তাঁর। 

গুরুতর জখম ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে প্রথমে দার্জিলিং সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে শিলিগুড়ির হাসপাতালে রেফার করা হয়। শিলিগুড়িতে নিয়ে আসার পথেই কার্শিয়াংয়ের কাছে মারা যান তিনি। 

পঞ্চমীর দিনে সপরিবারে দার্জিলিংয়ে বেড়াতে গিয়েছিলেন রিষড়ার বাঙুর পার্কের বাসিন্দা প্রদীপ সাক্সেনা। স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে দার্জিলিং ঘুরতে গিয়েছিলেন তিনি। রিষড়ার মিনি মার্কেটে  তাঁর কম্পিউটারের বড় ব্যবসা রয়েছে। বৃহস্পতিবারই বাড়ি ফিরে আসার কথা ছিল প্রদীপবাবুর। কিন্তু এ দিনই রিষড়ার বাড়িতে দুঃসংবাদ এসে পৌঁছয় । জনপ্রিয় এই ব্যবসায়ীর অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ দিন সন্ধ্যায় তাঁর বাড়িতে গিয়ে খোঁজ খবর নেন স্থানীয় পুরসভার চেয়ারম্যান বিজয়সাগর মিশ্র।