Asianet News Bangla

মোবাইলে প্রশ্নপত্রের 'ছবি তোলার চেষ্টা', হাতেনাতে ধরা পড়ল তিন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী

  • পরীক্ষাকেন্দ্র বসেই মাধ্যমিকে প্রশ্নপত্র 'ফাঁসের চেষ্টা'
  • মোবাইলে ছবি তুলতে গিয়ে ধরা পড়ল তিন পড়ুয়া 
  • অভিযুক্তদের পরীক্ষা বাতিল সিদ্ধান্ত পর্ষদের
  • উত্তর দিনাজপুরের করণদিঘির ঘটনা
     
Two student punished for taking photo of Madhyamik question paper
Author
Kolkata, First Published Feb 25, 2020, 2:15 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আশঙ্কা ছিলই। পরীক্ষার দেওয়ার সময়ে মোবাইলে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলতে দিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল তিনজন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। প্রশ্নপত্রের ছবি তারা বাইরে পাঠানোর চেষ্টা করছিল বলে অভিযোগ। অভিযুক্ত পড়ুয়াদের পরীক্ষা বাতিল করে দিয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের করণদিঘিতে।

আরও পড়ুনL ফের নয়ানজুলিতে উল্টে গেল গাড়ি, এবার দুর্ঘটনার কবলে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা

শিক্ষকদের কড়া নজরদারিতে সোমবার করণদিঘি হাইস্কুলে অঙ্ক পরীক্ষা দিচ্ছিল মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা। তাদের মধ্যেই একজন মোবাইলে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলছিল বলে অভিযোগ। সংশ্লিষ্ট কক্ষে যিনি নজরদারির দায়িত্বে ছিলেন, ঘটনাটি তাঁর নজরে পড়ে যায়। অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীর মোবাইলটি বাজেয়াপ্ত করেন তিনি। খবর দেওয়া হয় মধ্যশিক্ষা পর্ষদের প্রতিনিধিদেরও। সঙ্গে সঙ্গে ওই পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা বাতিল করে দেওয়া হয়। করণদিঘির তিতপুকুর হাইস্কুলে আবার প্রশ্নপত্র নিয়ে দু'জন পড়ুয়া শৌচাগারে চলে দিয়েছিল বলে অভিযোগ। সন্দেহ হওয়ায় ঘটনাটি মধ্যশিক্ষা পর্ষদের প্রতিনিধিদের জানান স্কুলের শিক্ষকরা। জানা গিয়েছে, পর্ষদের প্রতিনিধিরা যখন শৌচাগারে যান, তখন দেখেন, মোবাইলে অঙ্কের প্রশ্নপত্রের ছবি তুলছে ওই দুই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। এক্ষেত্রেও মোবাইল বাজেয়াপ্ত করে অভিযুক্তদের পরীক্ষা বাতিল করে দেওয়া হয়।   মধ্যশিক্ষা পর্ষদের উত্তর দিনাজপুর জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক ব্যোমকেশ বর্মন জানিয়েছেন, মাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলিতে আর বসতে পারবে না ওই তিনজন পড়ুয়া। শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির সুপারিশ মেনে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।  এই ঘটনায় অভিযোগ পেলে পদক্ষেপ করার আশ্বাস দিয়েছেন উত্তর দিনাজপুরের পুলিশ সুপারও।

আরও পড়ুন: মাধ্যমিক চলাকালীন বিষ খেয়ে আত্মহত্য়ার চেষ্টা, বরাত জোরে রক্ষা পেল ছাত্রী

উল্লেখ্য, মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্রে পড়ুয়াদের মোবাইল ব্যবহার করা নিষিদ্ধ। কিন্তু সে নিয়ম আর মানছে কে! দিন কয়েক আগে মালদহের একটি স্কুলে টিকটক ভিডিও করতে গিয়ে ধরা পড়ে যায় এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। তাকে গ্রেফতারও করে পুলিশ। এদিকে আবার প্রথম দু'দিন পরীক্ষা শুরু হতেই হোয়াটস অ্যাপে ছড়িয়ে পড়েছিল প্রশ্নপত্র। বৃহস্পতিবার আবার ভুগোল পরীক্ষা শুরু আগেই প্রশ্নফাঁস হয়ে যায়। অভিযোগ উঠেছে, মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরাই মোবাইল নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্র ঢুকছে এবং প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে বাইরে পাঠিয়ে দিচ্ছে। বস্তত, উত্তর দিনাজপুরেরই ইসলামপুরে একটি স্কুলের মোবাইল ঠেকাতে পরীক্ষার্থীদের মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশি বন্দোবস্ত করা হয়েছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios