ডিসেম্বরের প্রথমেও সেভাবে শীতের দাপট না থাকলেও মাসের মাঝামাঝি জাঁকিয়ে ঠান্ডা পড়ল রাজ্যে। বিভিন্ন জেলায় তাপমাত্র স্বাভাবিকের থেকে কমল বেশ কয়েক ডিগ্রি। বুধবার রাত থেকেই বাংলায় তাপমাত্রার পারদ কমতে থাকে। বৃহস্পতিবার তাপমাত্রা কমে ১০ ডিগ্রি হওয়ার সম্ভাবনার কথাও জানান হয়েছিল আবহাওয়া দফতর থেকে। বেশ কিছু জেলায় শৈত্য প্রবাহ হচ্ছে। এখনই পরিবর্তন হচ্ছে না আবহাওয়ার। 

আরও পড়ুনঃ নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আরও তীব্র আন্দোলন, কর্মসূচি ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

আগামী ৪৮ ঘন্টা ঠান্ডার মাত্রা একই থাকবে বলে শুক্রবার আবহাওয়া দফতর থেকে জানানো হয়। এদিন আবহাওয়াবিদ  গোকুলচন্দ্র দেবনাথ জানান, সোমবার পর্যন্ত থাকবে এই ঠান্ডা। তাপমাত্রা থাকবে স্বাভাবিকের থেকে গড়ে ২ থেকে চার ডিগ্রি কম। উত্তরবঙ্গ ও ডুয়াসে তাপমাত্রা ৯ থেকে ১০ ডিগ্রি থাকবে। কুয়াশা থাকবে আলিপুর দুয়ার, কুচবিহার, জলপাইগুঁড়ির বিভিন্ন এলাকায়।

আরও পড়ুনঃ স্টেশনে ভাঙচুর-ট্রেনে আগুন, রাজ্যের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হচ্ছে রেল

পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে শৈতপ্রবাহের সতর্কতা জারি করা হয়েছে, মূলত বীরভুম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝারগ্রাম, পশ্চিম বর্ধমান এলাকাগুলিতে। অন্যদিকে দক্ষিণবঙ্গে মুর্শিদাবাদ, নদীয়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনাতেও তাপমাত্রা কম থাকবে, আনুমানিক ১০-১১ ডিগ্রি, যা স্বাভাবিকের থেকে কম। কলকাতাতেও থাকবে শীতের দাপট। তাপমাত্রা থাকবে ১১ থেকে ১২ ডিগ্রি। তবে উত্তরের হাওয়া কমবে বেশ খানিকটা।