Asianet News Bangla

আদালতে হাজিরার আগেই খুন রাজসাক্ষী, চাঞ্চল্য কুলপিতে

  • বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে যুবককে কুপিয়ে খুন
  • একটি খুনের মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন যুবক
  • খুনের ঘটনায় রাজসাক্ষী হতে চেয়েছিলেন তিনি
  • আদালতে হাজিরার আগেই খুন করা হল তাঁকে
witness of murder case killed before appearing in court bmm
Author
Kolkata, First Published Jul 6, 2021, 2:43 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে যুবককে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল চার যুবকের বিরুদ্ধে। মৃতের নাম আব্দুল গফফার পুরকাইত (১৯)। পুরোনো একটি খুনের মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন তিনি। গতকালই জামিনে ছাড়া পেয়েছিলেন। পুরোনো ওই খুনের ঘটনায় রাজসাক্ষী হতে চেয়েছিলেন তিনি। সেই কারণেই তাঁকে খুন করা হয়েছে বলে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান। সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার কুলপি থানার রামকৃষ্ণপুর পঞ্চায়েতের ইটবাড়ি গ্রামে।

আরও পড়ুন- পুলিশ ফাঁড়ির লকআপে বন্দির মৃত্যু, রণক্ষেত্র কুলটি, পুলিশের গাড়িতে উত্তেজিত জনতার আগুন

মাস ছয়েক আগে খুন হয়েছিলেন ওই এলাকার বাসিন্দা খোকন মোল্লা। আব্দুলের খুড়তুতো ভাই ছিলেন তিনি। ওই ঘটনায় তখন পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। অভিযুক্তদের মধ্যে আব্দুলের নামও ছিল। গতকালই জামিনে ছাড়া পেয়েছিলেন তাঁরা। 

আরও পড়ুন- চেন্নাইয়ের হাসপাতালে আচমকা হার্ট অ্যাটাক, চলে গেলেন মুকুল রায়ের স্ত্রী

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই খুনের ঘটনার রাজসাক্ষী হতে চেয়েছিলেন আব্দুল। বুধবার তাঁদের আদালতে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল। অভিযোগ, তাই খুনের ঘটনায় বাকি অভিযুক্ত রাকিব সর্দার, রাজু মোল্লা, রফিকুল মোল্লা, খয়রুল আনম মোল্লা গতকাল রাতে আব্দুলকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করে। রাকিবের বাড়িতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে খুন করা হয়। পরে রাকিবের বাবা জাহাঙ্গীর সর্দারের চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাঁর বাড়িতে ঢুকে আব্দুলকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

আরও পড়ুন- বড়সড় পথ দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেলেন রাজ্যের মন্ত্রী, গাড়ির চাকা ফেটে বিপত্তি

ততক্ষণে এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা। খবর পেয়ে কুলপি থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। যদিও এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি। পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এলাকায়। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios