উত্তম দত্ত, হুগলি: স্বামীর মৃত্য়ুর বাৎসরিক কাজের দিনেই পুড়ে মৃত্যু হল স্ত্রীর। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির পাণ্ডুয়ায়। মৃত মহিলার নাম প্রতিমা ক্ষেত্রপাল। ঘটনায় আহত হয়েছেন মৃতের মেয়ে এবং দুই প্রতিবেশী।

শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটে পাণ্ডুয়ার ভেজনপুর গ্রামে। স্থানীয় সূত্রে খবর, প্রতিমাদেবীর স্বামী স্বপন ক্ষেত্রপালের বাৎসরিক কাজ ছিল এ দিন। সেই উপলক্ষে পাড়ার শিশুদের এ দিন  দুপুরে ওই বাড়িতেই নিমন্ত্রণ ছিল। তার জন্যই রান্নার আয়োজন করছিলেন প্রতিমাদেবী। তাঁকে সাহায্য করছিলেন তাঁর দুই মেয়ে এবং জা। যেহেতু বাড়িতে অনেকে নিমন্ত্রিত ছিলেন, তাই বাইরে থেকে গ্যাস ওভেন ভাড়া করে এনে রান্নার কাজ করা হচ্ছিল। 

অভিযোগ, সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ সিলিন্ডার ওভেনে লাগিয়ে আগুন জ্বালাতেই তা সারা ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। অগ্নিদগ্ধ হন প্রতিমা ক্ষেত্রপাল। প্রতিমাদেবীর দুই মেয়ে এবং জা কোনওক্রমে ঘর থেকে বেরিয়ে আসেন। প্রতিবেশীরা এসে অগ্নিদগ্ধ প্রতিমাদেবীকে উদ্ধার করে পাণ্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। স্বামীর বাৎসরিক কাজের দিনেই স্ত্রীর এভাবে মৃত্যুতে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। স্থানীয়দের অনুমান, কোনওভাবে গ্যাস লিক করেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।