জাতকের জন্ম সময়, তারিখ এবং জন্মস্থানের ভিত্তিতে, জন্মকালে মহাকাশে গ্রহের অবস্থান নিরুপণ করে অথবা প্রশ্নের সময় গ্রহাদির অবস্থান নির্ণয় করে, অথবা হস্তরেখাবিচার, শরীরের চিহ্নবিচার ইত্যাদি বিভিন্ন পদ্ধতির ব্যবহারে প্রশ্নকর্তার ভবিষ্যতের গতিপ্রকৃতি নির্ধারণ করার জ্ঞান ও পদ্ধতিকে জ্যোতিষশাস্ত্র বলা হয়। আবার জ্যোতিষশাস্ত্রের একটি বিভাগ দেশ, রাজ্য, শহর, গ্রাম ইত্যাদির এবং প্রাকৃতিক ঘটনাবলীর যেমন বৃষ্টি, অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, ভূমিকম্প, ঝড়, ঝঞ্ঝা, মহামারী বা প্লাবণের ভবিষ্যদ্বাণী করতেও ব্যবহৃত হয়।

আরও পড়ুন- বড়দিনের প্রভাব কেমন পড়বে রাশিগুলির উপর, দেখে নিন

প্রতিটি মানুষেরই জীবনে সাফল্য পেতে বহু বাধা বিপত্তি অতিক্রম করতে হয়। নানান সমস্য়া ও প্রতিকূলতা কাটিয়ে উঠে তবে একজন ব্যক্তি সাফল্যের মুখ দেখেন। তবে এমন বহু ব্যক্তি আছেন যাঁরা প্রতিনিয়ত বাধা বিপত্তি সম্মুখিন হয়েও জীবনে সফল হতে পারছেন না। জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে, ভাগ্য অনুযায়ী জীবনে নানা ঘটনা বা বিভিন্ন অনুকূল ও প্রতিকূল পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়। রাশি ভেদে আমাদের ভাগ্যে নির্ধারণ করা থাকে আমাদের কর্মজীবন কেমন হবে। 

আরও পড়ুন- বুধবার সারাদিন কেমন কাটবে আপনার,দেখে নিন আজকের রাশিফল

আমাদের জীবনে নানা ধরনের শুভ বা অশুভ ঘটনা, যা আমাদের ভাগ্যে পূর্ব নির্ধারিত হয়ে রয়েছে তা জানা যায় এক মাত্র জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে। রাশিচক্রের অষ্টম রাশি বৃশ্চিক। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ হল মঙ্গল। এই রাশির জাতক-জাতিকারা কঠোর পরিশ্রমী। তাই জীবনের দেরিতে হলেও এরা উন্নতি লাভ করে। তবে এই রাশির স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো থাকে না। এদের বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রচুর সম্পত্তির মালিক হয়ে থাকেন। এরা নিজের মনের চলতে বেশি পছন্দ করেন। কারও অধীনে থাকা এরা একেবারেই পছন্দ করেন না। সেভাবেই আজ জেনে নেওয়া যাক, ২০২০ সালে বৃশ্চিক রাশির জাতক জাতিকাদের কর্মজীবন কেমন হবে।

আরও পড়ুন- এই দশকের অন্তিম সূর্যগ্রহণ, কোন রাশিগুলির উপর পড়বে এর প্রভাব

নতুন বছরে ভাগ্য আপনার ভালো সঙ্গ দেবে। ২০২০ সালে আপনি উল্লেখযোগ্য সফলতা পাবেন। তবে অফিস নিয়ে আপনার অসন্তোষ প্রকাশ করার সম্ভাবনা রয়েছে। অফিসে যোগ্য সম্মান নাও পেতে পারেন। তাই অফিস পরিবর্তনের সম্ভাবনা রয়েছে। নতুন বছরে উন্নতির প্রচুর সুযোগ পাবেন। ব্যবসায়ীদের জন্য ২০২০ সাল বেশ ভালো। অত্যাধিক চাপ থাকবে তবে তার ফলও আশানুরূপ হবে। আর্থিক সঞ্চয়ের দিকেও সফল হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে আগামী বছরে। আগামী বছরে ধন প্রাপ্তিরও যোগ রয়েছে। অনেক দিনের কোনও ব্যঙ্ক লোন থাকলে তার থেকেও আগামী বছরে মুক্তি পাবেন। ভ্রমণের জন্য নতুন বছরে খরচ বৃদ্ধি পেতে পারে। নতুন বছর আপনার মোটের উপর ভালোই কাটবে। তবে চটজলদি কোনও সিন্ধান্ত নেবেন না। চিন্তা-ভাবনা করে তবে কোনও বিষয়ে সিন্ধান্ত নিতে হবে।