বুধবার সকালে, নয়াদিল্লিতে একবছর পর বসেছিল বিজেপির সংসদীয় দলের বৈঠক। পাঁচ রাজ্যের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচন এবং উত্তরাখণ্ডের নতুন মুখ্যমন্ত্রী ও হরিয়ানার রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়। আর সেখানেই পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির সম্ভাবনা নিয়ে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য  করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, বিজেপির এক সূত্রের  মাধ্যমে এমনটাই জানা গিয়েছে।

ওই সূত্রের দাবি, এদিন সংসদীয় কমিটির বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বাংলায় এবার বিজেপির ক্ষমতায় আসা একেবারে নিশ্চিত। কাজেই বঙ্গ বিজেপির কার্যকর্তাদের আরও দায়িত্ব নিতে হবে এবং উপযুক্ত আচরণ করতে হবে। এদিনের বৈঠকে, ৫ রাজ্যের তারকা ভোট প্রচারকদের নামও স্থির করা হয়।

গত ৭ মার্চ কলকাতায় ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে জনসভা করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সেই সভায় বিপুল মানুষের সাড়া পেয়েছিল গেরুয়া শিবির। আর তাতেই মানুষের মন পড়তে দক্ষ প্রধানমন্ত্রী, বাংলার মানুষের মেজাজটা ধরতে পেরেছেন বলে মনে করছেন বঙ্গ বিজেপির কার্যকর্তারা। বঙ্গ বিজেপি সূত্রে খবর, আগামী দেড় মাসে বহুবার রাজ্যে প্রচার অভিযানে আসবেন প্রধানমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিদেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।

আগামী ১৫ ও ১৯ তারিখ বাংলায় সভা করবেন অমিত শাহ, আর প্রধানমন্ত্রী মোদী আসছেন ১৮ ও ২০ তারিখ। জেপি নাড্ডার বঙ্গের কর্মসূচি সম্পর্কে বিশেষ কিছু জানা যায়নি। তবে যেটা দলীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, তা হল, প্রধানমন্ত্রীর থেকেও জেলায় জেলায় প্রচার তারকা হিসাবে বেশি চাহিদা রয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-র।  

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ছাড়াও এদিনের বিদেপি সংসদীয় কমিটির বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি, প্রহ্লাদ প্যাটেল প্রমুখ। কোভিড-১৯ মহামারির কারণে প্রায় এক বছর পর এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।