ভোটের ফল বেরোনোর আগেই একপ্রকার জয় ঘোষণা করে দিল মহারাষ্ট্র বিজেপি। দলের সদর দফতরে এস পৌঁছেছে ৫০০০লাড্ডু। কর্মী সমর্থকদের ফল দেখতে দফতরে বিশাল স্ক্রিনের ব্য়বস্থা করেছে গেরুয়া ব্রিগেড। যা ঘিরে হতাশা গ্রাস করেছে কংগ্রেস শিবিরে।

আরও পড়ুন : রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে আছে এক ডাইনোসর, অবহেলায় পড়ে রয়েছে কলকাতাতেই

বুথ ফেরত ভোট সমীক্ষা জানিয়ে দিয়েছে এবারও বিরাট ব্যবধানে মহারাষ্ট্রে জয় পেতে চলেছে বিজেপি-শিবসেনা জোট। টিভি -৯ মারাঠি ঘোষণা করেছে ২৮৮ আসনের মধ্য়ে মহারাষ্ট্রে ১৮৮টা আসন পাবে বিজেপি-শিবসেনা জোট। সিএনএন নিউজ ১৮-আইপোস সমীক্ষায় আরও বড় ব্য়বধানে জয়ের সম্ভাবনার কথা বলা হয়। তাদের হিসেব অনুযায়ী ২৮৮টা আসনের মধ্য়ে জোট পাবে ২৪৩টি আসন। ১১টি বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে,গড়ে ২১১টা আসন পাবে বিজেপি-শিবসেনা জোট। তবে বুথ ফেরত সমীক্ষার গড় ধরলে কপালে ভাঁজ পরার কথা গেরুয়া ব্রিগেডের। কারণ বিগত সময় মহারাষ্ট্রে ২১৭টি আসন পেয়েছিল এই জোট।

আরও পড়ুন : চাকরি ছেড়ে স্কুটারে 'মাতৃসেবা সঙ্কল্পযাত্রা', ভারতের মন জিতে নিলেন দক্ষিণমূর্তি, দেখুন ভিডিও

গত ২১ অক্টোবর ভোট হয়েছে মহারাষ্ট্রে। যেখানে ৬১.১৩ শতাংশ ভোট পড়েছে। জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। বিজেপিও নিশ্চিত লোকসভার রেশ দেখা যাবে মহারাষ্ট্রের বিধানসভা ভোটে। মোদী হাওয়ায় ভর করে সারা দেশে বিশাল জয় পেয়েছিল বিজেপি। এবার সেই মহারাষ্ট্রেও একই ফলের আশা করছে মোদী-অমিত শাহরা। তাই ভোট গননার আগেই বিজেপি সদর দফতরে ঢুকেছে বিশাল অঙ্কের লাড্ডু। ইতিমধ্যেই তা গুনে আলাদা করে সরিয়ে রাখছেন দলের নেতারা। মিষ্টিমুখে যাতে লাড্ডু কম না পড়ে তাই গতকালই আনা হয় স্পেশ্য়াল ঘিয়ের লাড্ডু।