জ্যোতিষ একটি সংস্কৃত শব্দ। এই শব্দের একটি অর্থ হল “জ্যোতির্বিষয়ক” এবং অস্ত্যর্থে এই শব্দের একটি অর্থ হল “জ্যোতিষশাস্ত্রবিৎ” এবং অন্য অর্থ “জ্যোতির্ব্বিৎ”। জ্যোতিষ ৬ টি বেদাঙ্গের অন্যতম। বেদাঙ্গ জ্যোতিষের উপলব্ধ শ্লোকগুলিতে মূলতঃ সূর্য্য-চন্দ্রের আবর্তন ও ঋতুপরিবর্তন সংক্রান্ত বিষয় আলোচিত হয়েছে। জ্যোতিষশাস্ত্র এমন একটি বিজ্ঞান যা নভোমণ্ডলে বিভিন্ন জ্যোতিষ্ক অর্থাৎ গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থান বিবেচনা করতঃ মানুষের ভাগ্যগণনা তথা ভাগ্য নিরূপণ করে। জ্যোতিষশাস্ত্রের প্রয়োগসূত্রগুলি কেবল সম্ভাবনা নির্দেশ করে, কিন্তু কোন নিশ্চিত ঘটনার কথা বলে না। তার কারণ এই যে জ্যোতিষীগণ মনে করেন মানুষ সচেতন কর্মের সাহায্যে অথবা ঈশ্বরের আশীর্বাদে অথবা এই দুইয়ের মিশ্রিতফলে ভাগ্য অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণ এবং পরিবর্তন করতে পারে। 

আরও পড়ুন- কেন প্রধানমন্ত্রী আলো জ্বালাতে ৫ এপ্রিল রাত ৯ টা বেছে নিলেন, জেনে নিন এই বিষয়ে জ্যোতিষ বিশারদের ব্যাখ্যা

পুরাতন বিশ্বাস মতে, তাই ঝাঁটা আমাদের পরিবারের সুখ ও সমৃদ্ধি বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই এই ঝাঁটা সম্পর্কিত এই বিশেষ তথ্যগুলি জেনে রাখা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। জ্য়োতিষশাস্ত্রের মত, আমাদের দৈনন্দিনব ব্যবহারে একটি অন্যতম বস্তু হল ঝাঁটা। এই একটি জিনিস আমাদের ঘরের যাবতীয় ময়লা দূর করতে সাহায্য করে। ঘর পরিস্কার রাখতে সাহায্য করে ঝাঁটা।  কেননা ঝাঁটার ভুল ব্যবহারের ফলে, সংসারে দেখা দিতে পারে মারাত্মক আর্থিক অনটন। তাই জেনে নিন ঝাঁটা ব্যবহারের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই নিয়মগুলি।

আরও পড়ুন- শনিবার চৈত্র মাসের শুক্লপক্ষের একাদশী, সমৃদ্ধি লাভে এদিনে পালন করুন এই নিয়মগুলি

বাস্তুশাস্ত্র মতে বাড়িতে আমরা যেমন ঘন সম্পদ লোক চক্ষুর আড়ালে রাখি, ঠিক সেই ভাবেই ঝাঁটাও লোক চক্ষুর আড়ালে রাখা উচিৎ।  যদি আপনি ভাড়া বাড়িতে থাকেন, তবে ঘর বদলের সময় আপনার ব্যবহৃত ঝাঁটা কখনই পুরনো বাড়িতে ফেলে দিয়ে যাবেন না। কারণ মনে করা হয়, এতে আপনার সংসারের শ্রী আটকা থাকে সেই পুরো বাড়িতেই। নতুন বাড়িতে সেই ঝাঁটা নিয়ে গিয়ে তবে নতুন ঝাঁটা কিনে বদল করবেন।  ঘরের জন্য নতুন ঝাঁটা কিনতে হলে তা সব সময় শনিবারে কিনুন।  শনিবারে ঘরের জন্য নতুন ঝাঁটা কেনা অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়। ঘর ঝাঁট দেওয়ার সময় ঝাঁটাতে কারও পা লাগা অত্যন্ত অশুভ বলে মনে করে হয়। তাই যখনই ঘর ঝাঁট দেবেন তখন ঘর ফাঁকা অবস্থাতেই ঝাঁট দেওয়া উচিত। বাড়ির কোনও সদস্য যদি চাকরির ইন্টারভিউতে যায়, তবে সেই ব্যক্তি ঘর থেকে বেড়নোর পর ঘর ঝাঁট দেওয়া উচিত নয়। এতে নতুন চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে বাধার সৃষ্টি হতে পারে। ঝাঁটা পুরনো হয়ে গেলে ভুলেও তা কখনই পোড়াবেন না। এতে সংসারের অমঙ্গল হয়। ঝাঁটা সব সময় পশ্চিম দিকে কোনও ঘরে রাখবেন। এতে ঘরে নেগেটিভ শক্তি প্রবেশ করতে পারে না।