প্রতিটি শাস্ত্রের মতো জ্যোতিষশাস্ত্রেরও কিছু একক আছে। জন্মরাশি সেই এককগুলির একটি। পৃথিবীকে কেন্দ্র করে চন্দ্রের আবর্তন পথকে ৩৬০ ডিগ্রি সমমানের একটি বৃত্ত আকারে এঁকে ১২ টি অংশে বিভক্ত করলে প্রায় ৩০ ডিগ্রী সমমানের যে বৃত্তচাপ পাওয়া যায় তার প্রত‌্যেকটিকে এক একটি রাশি বলা হয়।  জ্যোতিষশাস্ত্রের বৈধতা পরীক্ষা করা কঠিন হতে পারে কারণ জ্যোতিষবিদদের মধ্যে জ্যোতিষশাস্ত্র কী বা এটি কী ভবিষ্যদ্বাণী করতে পারে এই ব্যাপারে কোনও ঐক্য নেই । অধিকাংশ পেশাদার জ্যোতিষীদের ভবিষ্যতের পূর্বাভাস দিতে বা ব্যক্তির ব্যক্তিত্ব ও জীবনকে বর্ণনা করার জন্য অর্থ প্রদান করতে হয়, কিন্তু সর্বাধিক পঞ্জিকাগুলি কেবল অস্পষ্ট বিবৃতি প্রদান করে যা প্রায় যে বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা যেতে পারে।

আরও পড়ুন- বাড়িতে এই জিনিসগুলি সঞ্চয়ে বাধার সৃষ্টি করে, জেনে নিন বাস্তুর এই নিয়মগুলি

জ্যোতিষ্ক বিষয়ক তথ্য, সূত্রাবলী ও ব্যবহারিক প্রয়োগসমূহের সামগ্রিক জ্ঞান জ্যোতিষশাস্ত্র নামে পরিচিত। এই শাস্ত্রের উৎপত্তিকালে জ্যোতিষশাস্ত্র এবং জ্যোতির্বিজ্ঞান এক এবং অভিন্ন ছিল। পরবর্তিকালে জ্যোতিষশাস্ত্র জ্যোতিষ্কগুলির গতি এবং অবস্থানের ভিত্তিতে, প্রাকৃতিক এবং শারীরিক লক্ষণ অথবা দুয়ের সমন্বয়ে ব্যক্তি, সমষ্টি বা দেশের ভবিষ্যৎ নিরুপণের প্রায়োগিক দিকটি নিয়ে অভিজ্ঞতাভিত্তিক জ্ঞানের সংগ্রহ হিসেবে বিস্তার লাভ করে। অনেক সংস্কৃতির মধ্যেই জ্যোতির্বিজ্ঞানের ঘটনাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। পশ্চিমে, জ্যোতিষশাস্ত্র প্রায়ই একজন ব্যক্তির ব্যক্তিত্বের ব্যাখ্যা করার জন্য এবং তার জন্মের সময় সূর্য, চন্দ্র, এবং অন্যান্য জ্যোতিষ্কগুলির অবস্থানের উপর ভিত্তি করে তার জীবনের ভবিষ্যদ্বাণী করার জন্য ব্যবহৃত হত।

আরও পড়ুন- মাঘ মাস কেমন প্রভাব ফেলবে কন্যা রাশির উপর, দেখে নিন

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অনেক সময় প্রতিবেশীদের মধ্যে কিছু জিনিস আদান-প্রদান হয়ে থাকে। তবে জ্যোতিষশাস্ত্রে অনুযায়ী, এমন কিছু জিনিস রয়েছে যেগুলি সূর্যাস্তের পরে দান করলে তা আপনার এবং পরিবারে অশুভ প্রভাব ফেলতে পারে। এক নজরে দেখে নিন, সূর্যাস্তের পরে তাই এই জিনিসগুলি কখনওই কাউকে দান করা উচিত নয়। জেনে নেওয়া যাক সেই জিনিসগুলি। ঝাঁটা ঘরের নোংড়া দূর করে আমাদের ঘর পরিস্কার রাখে ফলে একে মহালক্ষ্মীর প্রতীক বলে বিশ্বাস করা হয়। তাই সূর্যাস্তের পরে ঝাঁটা কখনোই দান করা উচিত নয়। শাস্ত্র মতে, সূর্যাস্তের সময়ে মা লক্ষ্মী পৃথিবী ভ্রমণে বেরোন। ফলে এই সময়ে ঘরে লক্ষ্মীর আগমন ঘটে। তাই সূর্যাস্তের পরে কখনও পরিবারের বাইরে কাউকে অর্থ দেওয়া উচিত নয়।  আবার বৃহস্পতি সৌভাগ্য নিয়ন্ত্রণ করে। আর হলুদ হলবৃহস্পতি গ্রহের সঙ্গে সম্পর্কিত। তাই সন্ধ্যের পর হলুদ দান করলে বৃহস্পতি দুর্বল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে যার ফলে দুর্ভাগ্য বাড়তে পারে।