অক্ষয় তৃতীয়া ২৬ এপ্রিল ২০২০ রবিবারে। এই তিথিতে ভগবান বিষ্ণু এবং তাঁর অবতারদের বিশেষভাবে পুজো করার রীতি রয়েছে। ঘরে ঘরে সুখ ও সমৃদ্ধি বজায় রাখতে বিষ্ণুর পাশাপাশি লক্ষ্মীরও পুজোর রীতি রয়েছে এই তিথিতে। হিন্দু ও জৈন ধর্মাবলম্বীদের কাছে এটি একটি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ তিথি।এই শুভদিনে জন্ম নিয়েছিলেন বিষ্ণুর ষষ্ঠ অবতার পরশুরাম। বেদব্যাস ও গণেশ এই দিনে মহাভারত রচনা আরম্ভ করেন। এদিনই সত্য যুগ শেষ হয়ে ত্রেতাযুগের সূচনা হয়। এদিনই রাজা ভগীরথ গঙ্গা দেবীকে মর্ত্যে নিয়ে এসেছিলেন। এদিনই কুবেরের তপস্যায় তুষ্ট হয়ে মহাদেব তাকে অতুল ঐশ্বর্য প্রদান করেন। এদিনই কুবেরের লক্ষ্মী লাভ হয়েছিল বলে এদিন বৈভব-লক্ষ্মীর পূজা করা হয়।

আরও পড়ুন- আপনারও কি কর্কট লগ্ন, তবে আপনার মধ্যে রয়েছে এই বিশেষ গুণগুলি

অক্ষয় তৃতীয়ায় স্নানের পর ঘরে লক্ষ্মী পুজোর ব্যবস্থা করুন। পুজো শুরুর আগে গণেশের পুজো করুন। গনেশকে স্নান করুন। নতুন বস্ত্র প্রদান করুন সম্ভব হলে। আতর, ফুল, ভোগ নিবেদন করুন। গণেশের পরে সারুন দেবী লক্ষ্মীর পুজো। মাতা লক্ষ্মীর পাশাপাশি, কেউ রৌপ্য, পারদ বা স্ফটিকের মধ্যে ভগবান বিষ্ণুর মূর্তির পুজো করতে পারেন। পুজোর স্থানে দেব দেবীর প্রতিমা অথবা ছবি স্থাপন করুন। 

আরও পড়ুন- বৈশাখ মাস কেমন প্রভাব ফেলবে বৃশ্চিক রাশির উপর, দেখে নিন

দেবী লক্ষ্মীর উদ্দেশ্যে বস্ত্র অর্পণ করুন। সুগন্ধি আতর, ফুল দিয়ে নৈবেদ্য সাজিয়ে দিন। সাধ্য মত প্রসাদ, কুমকুমের সঙ্গে তিলক রাখুন পুজোর স্থানে। এবার হালকা ধূপ এবং প্রদীপ জ্বালিয়ে দিন। মাতা লক্ষ্মী গোলাপ এবং পদ্ম ফুল পছন্দ করেন। এই ফুল নিবেদন করতে পারেন। ঘি বা তেল দিয়ে একটি প্রদীপ জ্বালান। আরতি করুন।  মহালক্ষ্মী পুজোয় মহালক্ষ্মীর নমঃ মন্ত্র জপ করুন। সংসারে সুখ ও সমৃদ্ধি ফেরান এই বিশেষ তিথিতেই।