আজ শারদীয় দ্বিতীয়া, জানুন আজকের দিনের গুরুত্ব ও বিশেষ কিছু তথ্য

| Sep 27 2022, 03:03 PM IST

আজ শারদীয় দ্বিতীয়া, জানুন আজকের দিনের গুরুত্ব ও বিশেষ কিছু তথ্য

সংক্ষিপ্ত

রাজা হিমালয়ের ঘরে মা ব্রহ্মচারিণীর জন্ম হয়। নারদের পরামর্শে তিনি কঠোর তপস্যা করেন, যাতে তিনি স্বামী রূপে শিবকে পেতে পারেন। কঠোর তপস্যার কারণে তার নাম হয় ব্রহ্মচারিণী বা তপসচারিণী। 

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২। মঙ্গলবারশার শারদীয়া নবরাত্রির দ্বিতীয় দিন অর্থাৎ আজ দ্বিতীয়। নবরাত্রির দ্বিতীয় দিনে মা দুর্গার দ্বিতীয় রূপ মা ব্রহ্মচারিণীর পূজা করার নিয়ম রয়েছে। ব্রহ্মা অর্থ তপস্যা এবং চারিণী অর্থ যিনি পরিচালনা করেন। ভগবতী দুর্গার দ্বিতীয় রূপের নামকরণ করা হয়েছিল ব্রহ্মচারিণী দেবীর রূপে যিনি তপস্যা করেন।

ভগবান শিবকে স্বামীরূপে পাওয়ার জন্য দেবী কঠোর তপস্যা করেছিলেন। দেবী দুর্গার তপস্বী রূপকে পূজা করে ভক্ত ও অন্বেষীরা অসীম শুভ ফল লাভ করে। এ বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর দেবী ব্রহ্মচারিণীর দর্শন অনুষ্ঠিত হবে। কাশী খণ্ডে দেবীর স্থান দুর্গাঘাট বলা হয়। জেনে নিন নবরাত্রির দ্বিতীয় দিন সম্পর্কিত বিশেষ জিনিস-

Subscribe to get breaking news alerts

কোন ইচ্ছা পূরণ হয়-
নবরাত্রির দ্বিতীয় দিনে মা ব্রহ্মচারিণীর আরাধনা করলে ব্যক্তি রোগ-ব্যাধি থেকে মুক্তি পায়।

আজকের শুভ রং
মা ব্রহ্মচারিণীর কাছে সাদা রং খুবই প্রিয়।

আপনি কি রঙের কাপড় পরেছেন?
পূজার সময় ভক্তদের গোলাপী বা সাদা পোশাক পরতে হবে।

আজকের গুরুত্ব
ভগবতী ব্রহ্মচারিণীর পূজায় ভগবান শিবও প্রসন্ন হন। যম, নিয়মের বন্ধন থেকে মুক্তি পায়। ভগবতী ব্রহ্ম লাভের জন্য তপস্যা করেছিলেন, তাই তার নাম রাখা হয়েছিল ব্রহ্মচারিণী।

মা ব্রহ্মচারিণী ব্রত কথা

রাজা হিমালয়ের ঘরে মা ব্রহ্মচারিণীর জন্ম হয়। নারদের পরামর্শে তিনি কঠোর তপস্যা করেন, যাতে তিনি স্বামী রূপে শিবকে পেতে পারেন। কঠোর তপস্যার কারণে তার নাম হয় ব্রহ্মচারিণী বা তপসচারিণী। ভগবান শিবের পূজার সময়, তিনি এক হাজার বছর ধরে শুধুমাত্র ফল এবং ফুল খেয়েছিলেন এবং ১০০ বছর ধরে ভেষজ খেয়ে বেঁচে ছিলেন। 

তীব্র তপস্যায় তার শরীর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তাঁর তপস্যা দেখে সমস্ত দেবতা, ঋষিরা ভীষণভাবে মুগ্ধ হলেন। তিনি বললেন, তোমার মতো এটা কেউ করতে পারবে না। তোমার ইচ্ছা অবশ্যই পূরণ হবে। ভগবান শিবকে পাবেন স্বামী রূপে। তাই বলা হয়, মা ব্রহ্মচারিণীর পূজা করলে একজন ব্যক্তি সর্বদা তার কাজে জয়লাভ করেন। মা ব্রহ্মচারিণী হলেন এমন এক দেবী যিনি দুষ্টদের নাশ করেন ও সঠিক পথ দেখান।

Read more Articles on