সামনেই বর্ষবরণ। আর এরই সঙ্গে চলে প্রত্য়েকেরই নতুন ভাবে জীবন শুরু করা। আর সেই ক্ষেত্রে,নাগরিক জীবনে বাস্তুতন্ত্রের ভূমিকা অনস্বীকার্য। সেটা কোনও ক্ষেত্রেই হোক, বিয়ে থেকে শুরু করে বাড়ি তৈরী সবেতেই বাস্তুর প্রভাব আছে। অনেকসময় এমন হয়, যে দেখেশুনে সব কিছু করার পরও জীবনে নেমে আসে একাধিক সমস্য়া। যার সঠিক কারণও জানাও যায় না। এরফলে অনেকেই বুঝতে পারেনা এর আসল কারণ কী, তাই বহু অর্থ বিনিয়োগেও মেলে না কোনও সমাধান। কিন্তু একটু খেয়াল করলেই দেখা যায়, হাতের কাছেই ছিল উপায়। শুধু গুরুত্ব দেওয়া হয়নি বলে অসুবিধায় পড়তে হয়েছে। আসলে প্রাচীন কাল থেকেই মনি-ঋষিরা বাস্তুতন্ত্রের নিয়ম কানুনের কথা বলে এসেছেন। তাই খুব সহজেই সেই নিয়মগুলি পালন করলেই আগের থেকে ভাল সময় প্রত্য়েকের কাছেই ফিরে আসে। বিশেষ করে সেটা জমি তৈরির ক্ষেত্রেও তা খুব গুরুত্বপূর্ণ। 

আরও পড়ুন, বড়দিনে রাশিচক্র পরিবর্তন করবে মঙ্গল, আপনার রাশির উপর কেমন প্রভাব পড়বে জেনে নিন

আসলে যে কোনও ধরনের নির্মাণ কাজ শুরু করার আগে তার বাস্তু বিচার করে নেওয়া অত্যন্ত জরুরি। কারণ, জমি বা ভূখণ্ড বাছাইয়ের ক্ষেত্রে বাস্তুশাস্ত্রের নির্দেশ মেনে চললে বাস্তুদোষ কাটানো সম্ভব। এই বাস্তুশাস্ত্র মূলত আটটি দিকের উপর ভিত্তি করে নির্মিত। বাস্তুশাস্ত্রে সূর্যকে কেন্দ্র করে, আট দিকের উপর সৌর শক্তির প্রভাব অনুযায়ী গৃহ নির্মাণের বিধান দেওয়া আছে। এই আটটি দিক বিশ্লেষণ করেই ঠাকুরঘর, শোবার ঘর, স্নানের ঘর ইত্যাদি নির্মাণের বিধান দেওয়া হয়েছে। তাহলে চলুন, এবার বাস্তুশাস্ত্র মতে এই আটটি দিকের গুরুত্ব সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।


১) শাস্ত্র মতে, পশ্চিম দিক হল সাফল্য, যশ, ঐশ্বর্য ও খ্যাতির দিক।

২) ঈশান কোণ বংশ বৃদ্ধিতে স্থায়িত্ব প্রদান করে। এই কোনে  ত্রুটি আসলে, বংশ বৃদ্ধির ধারাবাহিকতায় বাধা সৃষ্টি করতে পারে।

৩) নৈঋত কোণ সুবিচারের জন্ম দেয়। এ ছাড়াও, নৈঋত কোণ সুসম্পর্ক গঠনে সহায়ক।

আরও পড়ুন, নতুন বছরে বৃশ্চিক রাশির কর্মজীবন কেমন থাকবে, জেনে নিন


৪) উত্তর দিকে কিছুটা খালি জায়গা ছাড়তে পারলে মাতুল বংশের মঙ্গল হয়।

৫) বাস্তুশাস্ত্র মতে, দক্ষিণ দিক হল ধন-সম্পত্তি, সমৃদ্ধি, সৌভাগ্য ও শান্তির দিক।

৬) বাস্তু মতে, পূর্ব দিক বংশের কল্যাণের দিক বলে ধরা হয়। তাই বাস্তু মতে, গৃহ নির্মাণের সময় পূর্ব দিকের কিছুটা জায়গা ফাঁকা ছাড়তে পারলে গৃহস্বামীর আয়ু বৃদ্ধি হয়।


৭) অগ্নি কোণ শারীরিক ভাবে সবল রাখতে বিশেষ ভাবে সহায়ক। এই কোণ ত্রুটিপূর্ণ হলে সংসারে অশান্তির সৃষ্টি হয়।

৮) বায়ু কোণ শত্রু বা মিত্র সম্পর্ক তৈরির ক্ষেত্রকে প্রভাবিত করে। বায়ু কোণ ত্রুটিপূর্ণ হলে শত্রুর সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।