বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায়। শুক্রবার ঢাকার মিরপুর এলাকার একটি বস্তিতে আগুন লেগে যায় বলে খবর। আগুনের করাল গ্রাসে নিমেষেই ছারখার হয়ে গিয়েছে সমগ্র বস্তি এলাকা। একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডের জেরে ধ্বংস হয়ে গিয়েছে বস্তির প্রায় ১৫ হাজার ঘর এবং গৃহহীন প্রায় ৫০,০০০ মানুষ। 

উত্তর ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের তরফে জানানো হয়েছে, ভয়াবহ এই দুর্ঘটনায়  যেসব মানুষ মাথার ওপর থেকে ছাদটুকু হারিয়েছেন তাঁদের অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রের ব্যবস্থা করা হয়েছে, যতক্ষণ না তাঁদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা হচ্ছে। 

সূত্রের খবর, কয়েকদিন আগেই ছিল ইদ-আল-আধা। আর তাই ইদ উপলক্ষ্যে বহু মানুষ এদিন শহরের বাইরে ছিলেন বলে জানা গিয়েছে, আর সেই সময়েই ঘটে যায় এই মারাক্মক অগ্নিকাণ্ড। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি, তবে বেশকিছু মানুষের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। জানা গিয়েছে ওই বস্তি এলাকায় বসবাসকাসরী বেশিরভাগ মানুষই আর্থিকভাবে দুর্বল। কেউ দিনমজুর, কেউ বা কলকারখানার শ্রমিক। ভয়াল অগ্নিকাণ্ডের জেরে তাঁদের যে পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তার মধ্যে থেকে কিছুটা বাঁচানোর আশায় এদিন খবর পেয়ে ছুটে এসেছিল কিছু মানুষ। 

তবে ঠিক কী কারণে আগুন লাগল ওই বস্তিতে তা এখনই স্পষ্ট করে বোঝা সম্ভব হচ্ছে না। তবে যেহেতু বস্তির অধিকাংশ বাড়িই বাঁশ এবং কাঠের তৈরি সেই কারণেই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে গিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে । তবে গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখতে ইতিমধ্যেই গঠন করা তদন্ত কমিটি। আশা করা হচ্ছে আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই তদন্তের রিপোর্ট পেশ করা হবে।