বাস ও বিমান পরিষেবা থাকলেও সীমান্তের ওপারে বাংলাদেশে যাওয়ার জন্য রেলপথকেই বেছে নেন অনেকেইয যাত্রী সাধারণের প্রবল চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এবার ঢাকা ও কলকাতা মধ্যে চলাচলকারী মৈত্রী এক্সপ্রেসের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। একই ভাবে কলকাতা ও খুলনার মধ্যে চলা বন্ধন এক্সপ্রেসের ট্রেনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

আরও পড়ুন: ধীরে ধীরে ভারতে থাবা বিস্তার করছে করোনা, কেরলে তৃতীয় ব্যক্তির শরীরে মিলল মারণ ভাইরাস

পূর্ব রেলের তরফে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ফেব্রুয়ারি মাস থেকে মৈত্রী এক্সপ্রেস সপ্তাহে ৬দিন চলবে। আরও বন্ধন এক্সপ্রেস সপ্তাহে একদিনের পরিবর্তে চালান হবে দুই দিন। 

নতুন সূচি অনুযায়ী আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে বাংলাদেশের রেক দ্বারা পরিচালিত মৈত্রী এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে শুক্র, রবি ও মঙ্গলবার ছাড়বে ও শনি, সোম ও বুধবার ফিরে যাবে। বাংলাদেশের রেক দ্বারা পরিচালিত মৈত্রী এক্সপ্রেসের চলাচল একদিন বাড়ান হয়েছে। 

আরও পড়ুন: ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ, নাবালিকা নির্যাতিতাকে অ্যাসিড ছুঁড়ল অভিযুক্তের পরিবার

এতদিন কলকাতা থেকে খুলনার মধ্যে শুদু বৃহস্পতিবার বন্ধন এক্সপ্রেস চালান হত। তবে এখন থেকে বৃহস্পতিবারের পাশাপাশি রবিবারও কলকাতা ও খুলনার মধ্যে বন্ধন এক্সপ্রেস চলাচল করবে। 

 

 

কলকাতা ও ঢাকার মধ্যে যোগাযোগ আরও দৃঢ় করতে ২০০৮ সালের ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষের দিন চালু হয়েছিল মৈত্রী এক্সপ্রেস। তৎকালীন বিদেশমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায় এর সূচনা করেছিলেন। তবে প্রথমদিকে যাত্রী সংখ্যা তেমন আশানুরূপ ছিল না। যদিও পরবর্তী সময়ে পরিস্থিতির বদল হয়। এখন মাত্র আট ঘণ্টাতেই কলকাতা থেকে ঢাকা পৌঁছে যাওয়া যায় এই ট্রেনে।

এদিকে কলকাতার সঙ্গে খুলনার যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল করতে ২০১৭ সালের ৯ নভেম্বর যাত্রা শুরু করে বন্ধন এক্সপ্রেস। প্রথমে বন্ধন এক্সপ্রেসে যাত্রী সংখ্যা কম থাকলেও এখন তা অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে বলে রেলসূত্রে জানান হয়েছে। তাই যাত্রীদের সুবিধার কথা ভেবেই এখন সপ্তাহে দুই দিন ট্রেনটি চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।