ফের এক নৃশংস ঘটনার সাক্ষী থাকল উত্তরপ্রদেশ। ধর্ষণের অভিযোগ প্রত্যাহার না করায় এক নাবালিকার উপর করা হল অ্যাসিড হামলা। নক্কারজনক এই ঘটনাটি ঘটেছে যোগীরাজ্যের হাপুর জেলায়।

গত বছর সেপ্টেম্বরে তাকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেছিল ওই নাবালিকা। তার পর থেকেই ধর্ষণের অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য তার উপর চাপ দিচ্ছিল প্রতিবেশী ধর্ষকের পরিবার। রবিবার ফের সমঝোতার জন্য নির্যাতিতার বাড়িতে চড়াও হয় ধর্ষকের পরিজনরা। নাবালিকা তাতে রাজি না হওয়ায় তাকে লক্ষ্য করে অ্যাসিড হামলা চালান হয় বলে অভিযোগ। হেনস্থা করা হয় নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যদেরও।

আরও পড়ুন: করোনার পর এবার বার্ডফ্লু আতঙ্ক, হত্যা করা হল ১৮,০০০ মুরগিকে

অ্যাসিড হামলায় গুরুতর জখম হয়েছে নির্যাতিতার পা। স্থানীয় হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে। ইতিমধ্যে নির্যাতিতাত পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে হামলা চালানোর ঘটনায় ২ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালান হচ্ছে। 

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কের মাঝে পরিণতি পেল ভালবাসা, চিন থেকে এসে সত্যর্থকে বিয়ে করলেন জিহাও

পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, নির্যাতিতা অভিযুক্তের প্রতিবেশী। ঘটনার দিন জোর করে নাবালিকার উপর অত্যাচার চালায় অভিযুক্ত। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে দিলশাহ নামে ওই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এর আগেও উত্তরপ্রদেশে ধর্ষিতার উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত ডিসেম্বরেই শুনানিতে যাওয়ার পথে  উন্নাওয়ের ধর্ষিতার উপর হামলা চালিয়েছিল কয়েকদল দুষ্কৃতী। এর ঘটনার কিছুদিনের মধ্যেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির সজফরজং হাসাপাতেল মৃত্যু হয় অগ্নিদগ্ধ ওই নির্যাতিতার। ধর্ষকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়াতেই নির্যাতিতার উপর হামলা চালান হয়।