আর মাত্র বাকি কয়েকটা দিন। তারপরই  জমকালো বিবাহ আসর বসতে চলেছে টলিপাড়ায়। কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। টলিমহলের অন্দরে কান পাতলেই বিয়ের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।  চলতি বছরেই বহু প্রতীক্ষিত বিয়ের আসর বসতে চলেছে খুব শীঘ্রই। আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি টলিপাড়ার জনপ্রিয় কাপল নীল ও তৃণার চারহাত একহাত হতে চলেছে। বিয়ের ঠিক ২৫ দিন আগেই রূপকথার এনগেজমেন্ট পর্ব সেরে ফেললেন প্রেমিক জুটি। গতকালই বসেছিল নীল-তৃণার এনগেজমেন্ট ও সংগীতের আসর। 

আরও পড়ুন-মাত্র ১০০ টাকার বিনিময়ে ছবিতে অভিনয়, সিনেমার হাতেখড়িতে এটাই ছিল হৃত্বিকের পারিশ্রমিক...

 

 

এ যেন রূপকথার আসর। ড্রোনে উড়ে এল এনগেজমেন্ট রিং। এবং ফিল্মি কায়দায় একে অপরের হাতে সেই আংটি পরিয়ে দিলেন হবু বর কনে। তারপর তৃণার কোমর জড়িয়ে নীলের ব়োম্যান্টিক ডান্স। পুরো বিষয়টি যেন রূপোলি পর্দার সিনের মতো। মুহূর্তের মধ্য়ে বাগদানের ভিডিও নজর কেড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

 

 

বাগদানের দিন হালকা গোলাপি রঙের শাড়িতেই নজর কেড়েছেন গর্জিয়াস তৃণা। কনের সঙ্গে ম্যাচ করে বেইজ রঙের গলাবন্ধ শুটে নজর কেড়েছেন নীল। এনগেজমেন্টের  আসরে টলিপাড়ার ঘনিষ্ঠ উপস্থিতিদের মধ্যে লাভবার্ডস রণজয়-সোহিনীও ছিলেন। আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি সাতপাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন নীল-তৃণা। শহরের নামী ক্লাবেই বসছে জমজমাট  বিয়ের আসর। বিয়ের দিন সাবেকিয়ানার সাজেই সাজবেন ব্রাইড টু বি তৃণা।  তবে ভালবাসার দিন অর্থাৎ ১৪ ফেব্রুয়ারি হবে গ্র্যান্ড রিসেপশন। ইতিমধ্যেই হানিমুন ডেস্টিনেশনও পাকা হয়ে গিয়েছে। গ্রীসেই মধুচন্দ্রিমায় যাবেন এই জুটি। 

 

 

ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে বিয়ের শপিং। কয়েক মাসের মধ্যেই বদলে যাবে নীল-তৃণার ব্যাচেলর জীবন। আর নতুন জীবনে পা দেওয়ার আগে ব্যাচেলর জীবনটা পুরোপুরি উপভোগ করতে চান বর -কনে দুজনেই। ইতিমধ্যেই বন্ধুদের নিয়ে ব্যাচেলরেট পার্টিতে চুটিয়ে মজা করেছেন নীল। তৃণাও কম কীসে। মিসেস তৃণা সাহা হওয়ার আগে গার্লস গ্যাং-এর সঙ্গে ব্যাচেলরেট পার্টিতে মত্ত  ছিলেন ব্রাইড টু বি। সম্প্রতি সেই  ছবিও নিজের ইনস্টা-তে শেয়ার করেছিলেন তৃণা সাহা। আইবুড়োভাত খাওয়াও শুরু করে দিয়েছেন তৃণা। মামার বাড়িতে আয়োজিত আইবুড়োভাতের ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন তৃণা। যা দুরন্ত গতিতে নেটিজেনদের নজর কেড়েছে। এবার শুটিং সেটেই স্ত্রী শ্যামারর হাতেই প্রথম আইবুড়ো ভাত খেলেন সকলের প্রিয় কৃষ্ণকলির নিখিল। স্টুডিওতেই আইবুড়োভাত পর্বের আয়োজন করা হয়েছিল। আইবুড়োভাত অনুষ্ঠানে ছিল এলাহি আয়োজন। ভাত, ডাল আলু ভাজা, সুক্তো, মাছ , মিষ্টি, দই, সবই ছিল মেন্যুতে। নিখিলের নতুন জীবনের জন্য অনেক শুভেচ্ছা ও শুভকামনা জানিয়েছেন অনস্ক্রিন স্ত্রী শ্যামা সহ কলাকুশলীরা।