স্বামীকে লুকিয়ে পরকীয়া, এ আবার নতুন কি, হালফ্যাশনে এটাই ট্রেন্ড। তবে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছেন শ্রীলেখা মিত্র। নিজের স্বামীকে ছেড়ে অন্য পুরুষের সঙ্গে। এমনই গুরুতর অভিযোগে বিদ্ধ অভিনেত্রী। এখানেই শেষ নয়, স্ত্রীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথা নিজের চোখে দেখেও ফেলেছেন স্বামী। তারপরই বুমেরাং। মাত্র ১২ সেকেন্ড পরই বদলে গিয়েছে সম্পর্কের রসায়ন। অনেকেই ভাবছেন কী হতে চলেছে। বিষয়টা একটু খোলসা করে বলা যাক, 

রিয়েল লাইফে নয়, বং রিল লাইফে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছেন শ্রীলেখা।  পরিচালক অংশুমান ব্যানার্জির শর্টফিল্ম  '১২ সেকেন্ড'-এ শ্রীলেখা ও শিলাজিৎকে জুটি বাঁধতে দেখা যাবে। এখানেই রয়েছে আসল টুইস্ট। শ্রীলেখার স্বামীর ভূমিকায় দেখা যাবে গায়ক অভিনেতা শিলাজিৎ মজুমদারকে। জানা গিয়েছে, অল্প সময়ের  মধ্যে শিলাজিৎ জানতে পারে তা স্ত্রী সৃজিতা পরকীয়ায় মত্ত। ছেলে আবার মাদকাসক্ত। কোকেন ছাড়া তার দিনাতিপাত সম্ভব নয়। ছেলে ও স্ত্রী ছাড়া মেয়েও অন্য এক সম্পর্কে জড়িত। যিনি কিনা বিবাহিত এবং যাদের বয়সেরও বিস্তর ফারাক। সব মিলিয়ে জটিল সমস্যায় পড়ে শিলাজিৎ। তবে বড় বাঁচা বেঁচে গেছে শিলাজিৎ। কারণ পুরোটাই স্বপ্নকে ঘিরে। আর এখানেই ট্যুইস্ট রেখেছেন পরিচালক।

 শ্রীলেখা মিত্র। নামটাই যেন যথেষ্ঠ। পুরুষদের আকৃষ্ঠ করতে তার জুড়ি মেলা ভার। এই বয়সে এও নেটদুনিয়ায় নিজের জায়গাটা বেশ জাকিয়ে ধরে রেখেছেন অভিনেত্রী। সে শরীরী উত্তেজনামূলক ছবি বা ভিডিও পোস্ট করেই হোক, কিংবা বাঙালি কন্যার শাড়ির ভাঁজে ক্লিভেজ উন্মুক্ত করেই হোক, সবেতেই সাবলীল শ্রীলেখা। পর্দাতেই তার নজরকাড়া উপস্থিতি সকলেরই নজর কাড়ে। কাজের প্রতি, নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসী অভিনেত্রী নিজেও জানেন বহু পুরুষের স্বপ্নে পরী তিনি। দীর্ঘ লকডাউনে মানুষের মানসিক দিকে যা প্রভাব পড়েছে, তা-ই এই ছবির বিষয়বস্তু। শ্রীলেখা  ও শিলাজিৎ ছাড়াও রয়েছে অরূপ ও এণাক্ষী। সঙ্গীত পরিচালনাক দায়িত্ব রয়েছেন রুদ্র সরকার এবং চিত্রনাট্য লিখেছেন সুপর্ণা ঘোষ মিত্র। বিভিন্ন রকমের শেডও রয়েছে এই শর্টফিল্ম। ফের শ্রীলেখা ও শিলাজিৎকে একসঙ্গে দেখা যাবে।