টলি ইন্ডাস্ট্রির অবেদনময়ী প্রথম সারির অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী। যার ফ্ল্যাট অ্যাবস,  মেদহীন ছিপছিপে কোমড়ের উষ্ণতায় মাতোয়ারা দর্শক। একের পর এক সাড়া জাগানো ছবি দিয়ে রাতের ঘুম কাড়ছেন এই বঙ্গ ললনা। কখনও ছাপোষা বাঙালি তো কখনও গৃহবধু, আবার কখনও উষ্ণ আবেদনে নিজেকে মাতিয়ে রেখেছেন অভিনেত্রী। তাকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পাওয়ার জন্য সকলেই মরিয়া। কিন্তু অভিনেত্রীর বাড়ির চিত্রটা কিন্তু পুরো উল্টো।

আরও পড়ুন-নুসরতের জীবনে 'Bad Boy' কে, হট অ্যান্ড বোল্ড ভিডিওতে সটান প্রশ্ন নায়ক যশের...

মেয়ের বয়স হলে এমনিতেই বাবা-মায়েদের রাতের ঘুম কমে যায়, মেয়ের বিয়ে না দেওয়া পর্যন্ত তাদের শান্তির ঘুম হয় না। কিন্তু ঋতাভরী ক্ষেত্রে তেমনটাই নয়, কারণ জানলে ভিড়মি খাবেন। সম্প্রতি  ঋতাভরী নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন, যেখানে তিনি জানিয়েছেন, তাকে নাকি অনেকেই বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন, সেই কথা শুনে ঋতাভরীর মা সকলকে অনুরোধ করেছেন তার মেয়েকে যেন কেউ বিয়ে করে , আর যে তাকে বিয়ে করবে তার লাইভ নাকি হেল হয়ে যাবে। মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও।

 

 

কেন এমন কথা বললেন অভিনেত্রীর মা শতরূপা সান্যাল, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন নেটিজেনরা। তবে পুরো বিষয়টাই নিছকই মজার ছলে করেছেন অভিনেত্রী তা বেশ ভালই টের পাওয়া যাচ্ছে। মা যেন প্রকাশ্যে সব ফাঁস না করে দেন, তা মাকে নিয়ে খানিক পরেই পালিয়ে গেছেন ঋতাভরী। অভিনেত্রীর মা একা হাতে মানুষ করেছেন ঋতাভরী ও চিত্রাঙ্গদাকে। দুই মেয়েই এখন স্বপ্রতিষ্ঠিত, তাই মেয়েদের বিয়ে নিয়ে এখনই কিছু ভাবছেন না পরিচালক-প্রযোজক শতরূপা। এমনকী মায়ের কথা বিশ্বাস করতেও বারণ করেছেন অভিনেত্রী স্বয়ং।