হাড্ডাহাড্ডি লড়াই জমে উঠেছে। প্রত্যাশা মতোই এই সপ্তাহের টিআরপি-তে নেই কোনও বড় চমক। গত সপ্তাহের মতোই ফের রানিমার প্রথম স্থান দখল করে নিল মোহর শঙ্খ জুটি। ঠিক একইরকম ভাবে দ্বিতীয় স্থানে জি বাংলার ধারাবাহিক 'করুণাময়ী রাণী রাসমণি'। এবং তৃতীয় স্থানে 'খড়কুটো'।

আরও পড়ুন-লাভ জিহাদের পক্ষে সত্যি কি সওয়াল করেছিলেন শাহরুখ, গৌরীকে নিয়ে কেন করেছিলেন এমন উক্তি...

মাত্র কয়েক পয়েন্টের ব্যবধানে একে অন্যের থেকে নিচে রয়েছে। এর আগে  পরপর একটানা তিন সপ্তাহ ধরে প্রথম স্থানে ছিল জি বাংলার ধারাবাহিক 'করুণাময়ী রাণী রাসমণি'। 'হ্যাট্রিক' করার পর অবশেষে গত সপ্তাহেই সেই জায়গা দখল করেছিল মোহর-শঙ্খ জুটি। হাড্ডাহাড্ডি লড়ইয়ে জমজমাট পর্ব। আগের সপ্তাহের মতোই এই সপ্তাহেও প্রথম স্থান থেকে দ্বিতীয় স্থানে নেমে এসেছে 'করুণাময়ী রাণী রাসমণি'। মাত্র ০.২ পয়েন্টের ব্যবধানে রানিমাকে পিছনে ফেলে এগিয়ে গেল মোহর। মেগা ধারাবাহিক মোহরের ঝুলিতে এবার ১০.৪পয়েন্ট। দ্বিতীয় স্থানে ১০.২ পয়েন্টে রয়েছে 'করুণাময়ী রাণী রাসমণি'। ১০.০০ পয়েন্টে তৃতীয় স্থানে রয়েছে 'খড়কুটো'।

 

 

দুর্গাপুজোয় প্রথমস্থান ধরে রেখে বাজিমাত করছিল মোহর-শঙ্খ জুটি। আবার পুরোনো জায়গায় ফিরে গেছে মোহর। সৌজন্যে শঙ্খর বিয়ের হাইভোল্টেজ ড্রামা। বিবাহ অভিযানেই বাজিমাত করেছে মোহর। কেউ কাউকে একচুল জমি ছাড়তে নারাজ। টিআরপি-র দৌঁড়ে সকলেই উঠে পড়ে লেগেছে। একের পর এক নয়া টুইস্ট আসছে ধারাবাহিকে। অন্যদিকে সৌজন্য এবং গুনগুনের খুনসুটি, বিবাহ পর্ব মাতিয়ে রেখেছে দর্শকদের।  আগের সপ্তাহের মতোই ৯.৩ পয়েন্ট নিয়ে চতু্র্থ স্থানে রয়েছে  'কৃষ্ণকলি' ।   ২০ বছর এগিয়ে গিয়ে বেশ অনেকদিন পরে টিআরপি-এর তালিকায় উঠে এসেছে 'কৃষ্ণকলি'। শ্রীময়ী'কে টক্কর দিয়ে ৮.৯ পয়েন্টে পঞ্চম স্থানে রয়েছে  'সাঝের বাতি'। । টিআরপি-র দৌঁড়ে  ৮.৯ পয়েন্টে পঞ্চম স্থানে রয়েছে এই ধারাবাহিক। তবে রানিমা  কি পারবে নিজের জায়গায় ফিরে যেতে , নাকি মোহর-শঙ্খ কিংবা সৌজন্য-গুনগুন পৌঁছাবে প্রথম তালিকায়, সেটাই এখন দেখার।