বহুদিন কাজ বন্ধ ছিল বিনোদন জগতে। করোনার প্রকোপে কা না থাকায়, মাসের পর মাস চূড়ান্ত অর্থকষ্টে ভুগেছিলেন শিল্পী ও টেকনিশিয়ানরা। শিল্পীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন আর্জিও জানিয়েছিলেন নেটদুনিয়ায়, তাদের জন্য যেন সরকার ভাবনাচিন্তা করেন। দীর্ঘ দুমাস পর ফের শুরু হবে শ্যুটিং। এতদিন লকডাউনেও বাড়িতে বসেই নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন তারকারা। টেলিভিশনেই চলছিল লকডাউনের নানা অনুষ্ঠান। সম্প্রতি শুরু হয়েছে ধারাবাহিকের শ্যুটিং। শ্যুটিং শুরু হতেই 'এখানে আকাশ নীল' ধারাবাহিকে এল নয়া মোড়। নেই হিয়া অর্থাৎ অভিনেত্রী অনামিকা চক্রবর্তী। ধারাবাহিকে কয়েকবারই দেখানো হয়েছে তাঁকে।

আরও পড়ুনঃ'রানী রাসমণি'র ভিন্ন রূপ, ছবিতে মুগ্ধ সাইবারবাসী

আপাতত হিয়ার চরিত্রটির কঠিন অসুখের দরুণ চিকিৎসাধীন। তাঁকে বাঁচানো যাবে কিনা সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। অন্যদিকে অভিনেত্রী প্রমীতা চক্রবর্তীকে দেখানো হচ্ছে ডাক্তার ঝিনুক সেনের চরিত্রে। তাঁকেই কি এবার উজানের বিপরীতে দেখা যাবে। নানা প্রশ্ন সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়। হিয়া-উজানকেই দেখতে চায় ভক্তরা। নতুন চরিত্র গল্পে ঢুকলেও মেনে নিতে পারছেন না দর্শকমহল। প্রসঙ্গত লকডাউন কাটিয়ে পুরনো ছন্দে ফিরেছে বিনোদনের দুনিয়া। ছোটপর্দা থেকে বড়পর্দা। উপার্জন বন্ধ হয়ে যাওয়ায়, সাংঘাতিক অর্থকষ্টের মধ্যে দিয়ে গিয়েছে অসংখ্য অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। অবশেষে আশার আলো দেখা গেল বিনোদন জগতে। 

আরও পড়ুনঃ'কাদম্বিনী' রূপে ঊষসী রায়, টিজারে ছক্কা হাঁকালেন 'বকুল'

 

মুখ্যমন্ত্রীর বিনোদন জগতের উদ্দেশে নোটিশে লিখেছিলেন গত মাসে, জানিয়েছিলেন এই মাসের প্রথম দিন থেকেই শুরু হবে টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্র জগতের শ্যুটিং। সেই মতই শুরু হয়েছে শ্যুটিংয়ের কাজ। তবে বন্ধ থাকছে রিয়্যালিটি শো, ওয়েব পোর্টাল এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্মের শ্যুটিং। রয়েছে আরও কয়েকটি বাধানিষেধ। শ্যুটিং সেটে খুব বেশি হলে উপস্থিত থাকবে ৩৫ জন। অভিনেত্রী, অভিনেতা, পরিচালক এবং টেকনিশিয়ান সহ ৩৫ জনের বেশি একজনও অতিরিক্ত ব্যক্তি থাকতে পারবেন না সেটে। এছাড়াও অন্যান্য নিয়ম মেনেই চলছে শ্যুটিং। ইনডোর ছাড়াও আউটডোর শ্যুটিংয়ের অনুমতিও দিয়েছে সরকার। আউটডোর শ্যুটিংয়ে রয়েছে কড়া নিয়ম। যা মেনেই চলবে শ্যুটিংয়ের যাবতীয় কাজ।